1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৫:৪০ অপরাহ্ন

অঝোরে কাঁদলেন মোদি

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১২৮ বার দেখা হয়েছে

বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি আগেও আবেগতাড়িত হয়েছেন। কিন্তু বিরোধী দলের কোনো নেতার কথা বলতে গিয়ে সংসদে দাঁড়িয়ে এভাবে কাঁদতে দেখা যায়নি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা গুলাম নবি আজাদকে বিদায়ী ভাষণ জানাতে গিয়ে বারবার আবেগতাড়িত হয়ে পড়লেন মোদি। এমনকি, বেশ কয়েক মুহূর্ত বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন।

আজ মঙ্গলবার রাজ্যসভার চলতি অধিবেশনের শেষ দিন ছিল। একই সঙ্গে সাংসদ হিসেবে মেয়াদ শেষ হয়েছে রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা গুলাম নবি আজাদের। দায়িত্বে থাকাকালীন বারবার নানা ইস্যুতে মোদি সরকারকে তীব্র আক্রমণ শানিয়েছেন আজাদ। প্রধানমন্ত্রীকেও অতীতে নিশানা করেছেন তিনি। কিন্তু এ দিন রাজনৈতিক তিক্ততা ভুলে কংগ্রেস সাংসদের ভূয়সী প্রশংসা শোনা গেল প্রধানমন্ত্রীর গলায়।

স্মৃতি হাতড়ে নরেন্দ্র মোদি বলেন, ‌‘তিনি গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন কাশ্মীরে জঙ্গি আক্রমণে নিহত গুজরাতের বাসিন্দাদের দেহ ফেরানোর ব্যবস্থা করতে গভীর রাতে শ্রীনগর বিমানবন্দরে পৌঁছে গিয়েছিলেন গুলাম নবি আজাদ। সেখান থেকেই ফোন করেছিলেন মোদিকে। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘সেদিন ওনার গলা শুনে মনে হচ্ছিল, যেন পরিবারের কাউকে হারিয়েছেন। সেদিন ওনার কান্না যেন থামতে চাইছিল না। এত রাতেও উনি বিমানবন্দরে পৌঁছে গিয়েছিলেন।’
এই পর্যন্ত বলেই কেঁদে ফেলেন মোদি। নিজের কথাও শেষ করতে পারেননি তিনি। গুলাম নবি আজাদকে স্যালুটও করেন তিনি।
মোদি বলেন, বিরোধী দলনেতা হিসেবে গুলাম নবি আজাদের স্থলাভিষিক্ত যিনি হবেন, তার কাজটা কঠিন হতে চলেছে। কারণ, আজাদ যেভাবে দায়িত্ব পালন করেছেন, সেই জায়গা পূরণ করা মুশকিল।
‘ক্ষমতা তো আসবে যাবে, কিন্তু কীভাবে তার ব্যবহার করতে হয়, সেটা গুলাম নবি আজাদের থেকে শিখতে হয়। আপনি একজন প্রকৃত বন্ধু।’

সূত্র: নিউজ১৮, এনডিটিভি

 

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি