1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৫০ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
প্রাচ্য ও পাশ্চাত্যের মধ্যে ব্যবসায়িক সেতুবন্ধন গড়ে তুলবে বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী জন্মের পর থেকেই মিলবে জাতীয় পরিচয়পত্র নিম্নআয়ের মানুষ ঠকিয়েই কর্ণফুলী মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ ইমরান খানকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ২৮ অক্টোবর থেকে ঢাকায় ফ্লাইট চালাবে সিঙ্গাপুর এয়ারলাইন্স সৌদি বাদশাহকে হত্যা করতে চেয়েছিলেন যুবরাজ রাজধানীতে মাদক বিক্রি ও সেবনের অভিযোগে গ্রেফতার ৭২ টস হেরে ব্যাটিংয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ‘বিদ্রূপের শিকার’ শামির পাশে শচীন-শেবাগ-রাহুল গান্ধী ডাকাতির মামলায় জামাই-শশুর গ্রেফতার ১১ দিন পরে সেই বৃদ্ধ মা-কে নিজ বাড়িতে নিলেন ছেলেরা সিরাজগঞ্জে স্কুলছাত্রী হত্যা মামলায় দুইজনের যাবজ্জীবন গণিত অলিম্পিয়াডে ঝিনাইদহের মেয়ে অনন্য নজির গড়লেন বেনাপোলে বিষাক্ত রাসেল ভাইপা সাপ উদ্ধার নোয়াখালীতে সহিংসতার ঘটনায় জবানবন্দিতে বিএনপির বুলুসহ ১৫ জনের নাম

অবশেষে পৃথিবী থেকে বিদায় নিলেন ৩০২ কেজি ওজনের মাখন মিয়া

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৩০৮ বার দেখা হয়েছে

অস্বাভাবিক ওজন নিয়ে জীবন যুদ্ধে হেরে অবশেষে পৃথিবী থেকে বিদায় নিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মাখন মিয়া। মৃত্যুকালে তার ওজন ছিল ৩০২ কেজি। মাত্র ৪০ বছর বয়সে জীবনের ইতি টানেন তিনি।

গত সোমবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাত ১০টার দিকে ব্রাহ্মনবাড়িয়া সদর জেনারেল হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন তিনি। মাখন মিয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌর শহরের দক্ষিণ মৌড়াইলের মিলন মিয়ার ছেলে। মাখন মিয়া জীবনের শুরুতে ওজন স্বাভাবিক থাকলেও পরে ধীরে ধীরে তা বাড়তে থাকে। মৃত্যুকালে তার ওজন দাঁড়ায় ৩০২ কেজি।
অস্বাভাবিক এই ওজন নিয়ে দীর্ঘদিন মানবেতর জীবন কাটিয়ে ছিল মাখন মিয়া। অবশেষে ওজনের কারণে জীবন যুদ্ধে হেরে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন মাখন মিয়া।
মাখন মিয়ার পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত কয়েক দিন ধরে মাখন মিয়া প্রচন্ড শ্বাসকষ্ট ও হৃদরোগে ভুগছিলেন। ২০ বছর বয়স পর্যন্ত স্বাভাবিকই ছিলেন মাখন মিয়া। এরপর থেকে বাড়তে থাকে তার শরীরের ওজন। শেষ পর্যন্ত তার ওজন ৩০২কেজিতে দাঁড়ায়। অস্বাভাবিক ওজনের কারণে ব্যাহত হচ্ছিল তার চিকিৎসা। চিকিৎসার ব্যয় বহন করতে গিয়ে এখন নি:স্ব মাখন মিয়ার পরিবার। দুই সন্তান ও স্ত্রী নিয়ে খেয়ে পড়ে বেঁচে থাকাই ছিল কষ্টকর।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, ‘সোমবার রাতে মাখন গুরুত্বর অসুস্থ হয়ে পড়লে স্বজনরা তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তার ওজনের কারণে হাসপাতালের ভেতরে জরুরী বিভাগে ঢুকানো সম্ভব হয়নি। হাসপাতালের গেইটেই তাকে চিকিৎসা দিতে হয়েছে। মাখনের শ্বাসকষ্ট ও বুকে ব্যথা ছিল। ইসিজি করার কিছুক্ষণ পরেই তার মৃত্যু নিশ্চিত হয়।’

 

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি