1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
  3. [email protected] : lalashimul :
শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১০:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
১৫ আগস্ট শুধু শোক দিবস নয়, শক্তি সঞ্চয়েরও দিন : সেতুমন্ত্রী আন্তঃব্যাংক চেক নিষ্পত্তির নতুন সূচি ঘোষিত মুদ্রানীতি গতানুগতিক : ডিসিসিআই ছুটির দিনে বের হয়ে রাজধানীতে গ্রেফতার ৩৮১ আবারও প্রতিপক্ষ হয়ে লড়াইয়ে শাহরুখ-সালমান সাংবাদিকের ফোনে পেগাসাসের আড়িপাতার বিষয়টি নিশ্চিত করল ফ্রান্স লকডাউন কার্যকর করতে সিডনিতে সেনা মোতায়েন টিকা নিলে ১০০ ডলার করে দেয়ার প্রস্তাব বাইডেনের ঈদের পর ৭৮১ কোটি টাকা হারালেন বিনিয়োগকারীরা করোনায় আক্রান্ত মেহের আফরোজ শাওন অলিম্পিক থেকে জোকোভিচের বিদায় ১ আগস্ট থেকে খুলবে গার্মেন্টসসহ সব শিল্প-কারখানা এক দিনে আরও ১৭০ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে এই সপ্তাহেই আসছে অক্সফোর্ডের আরও ১৩ লাখ টিকা ভারত থেকে আরও দুইশ মেট্রিক টন তরল অক্সিজেন এলো দেশে

অর্থনীতি গতিশীল রয়েছে সঠিক পদক্ষেপের কারণে : প্রধানমন্ত্রী

রিপোর্টার
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ৬ অক্টোবর, ২০২০
  • ২৩৪ বার দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, নগদ সহায়তা ও প্রণোদনাসহ সঠিক পদক্ষেপের কারণেই সরকার অর্থনীতি গতিশীল রাখতে সক্ষম হয়েছে।

মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভার সূচনা বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে সভায় অংশ নেন।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা খুব সময় মতো পদক্ষেপ নিয়েছিলাম। কত টাকা আছে, না আছে সেটা চিন্তা করিনি। আমরা খুব সময় মতো পদক্ষেপ নিয়েছিলাম। এটাই চিন্তা করেছি এই দুঃসময়ে অর্থনীতির চাকাটা গতিশীল রাখতে হলে আমাদের পদক্ষেপ নিতে হবে। মানুষের হাতে টাকা পৌঁছে দিতে হবে। আর সাধারণ মানুষ যারা- আসলে কোনো কাজ না থাকলে তাদের তো জীবন চালানো মুশকিল। তাদেরকেও নগদ অর্থ সাহায্য করা বা বিভিন্ন সেক্টরে যে আমরা টাকা পাঠিয়েছি সেগুলোও খুব কাজে লেগেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কৃষিতে আমরা সরাসরি প্রণোদনা দিলাম। আবার শিল্পসহ অন্যান্য সেক্টরগুলোর জন্য আলাদাভাবে কিন্তু ভাগে ভাগে দিয়েছি। যেমন ক্ষুদ্র ও মাঝারির জন্য আলাদা, বৃহৎ শিল্পের জন্য আলাদা এ রকম প্রত্যেকটা সেক্টরের জন্য আমরা ভাগ ভাগ করে দেয়ার পরে গার্মেন্টস সেক্টরের জন্য বিশেষভাবে দিলাম। এই দেয়ার কারণেই অর্থনীতিটাকে গতিশীল রাখতে সক্ষম হয়েছি।

সরকারপ্রধান আরও বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্যের ক্ষেত্রে আমরা যে প্রণোদনা দিয়েছি- তাতেই কিন্তু তারা ঘুরে দাঁড়াতে পেরেছে। আবার ব্যবসায় ফিরে আসতে পারছে। এমন কোনো সেক্টর নেই যাদেরকে আমরা সাহায্য দেইনি।

বঙ্গবন্ধুকন্যা আরও বলেন, যারা বিত্তশালী, বড়লোক তাদেরকে সেভাবে আমরা দিইনি। যারা ব্যবসার সঙ্গে জড়িত তাদের কাছে পৌঁছাতে পেরেছি এবং সময় মতো আমরা যে টাকাটা দিলাম, নগদ এবং প্রণোদনা দিলাম এটাতেই কিন্তু তারা ব্যবসাটাকে ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে। যারা লেবার তাদেরও কাজ করবার আগ্রহ ছিল, তারাও কাজ করছে।

কৃষি উৎপাদন বাড়ানোর তাগিদ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, কৃষিকে গুরুত্ব দিতে হবে। কৃষি আমাদের ধরে রাখতে হবে এবং খাদ্য উৎপাদন বাড়াতে হবে। মানুষের যাতে খাবারে কষ্ট না হয়, সেটা আমরা কিন্তু ধরে রেখেছি।

 

এম এ হালিম

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি