1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
  3. [email protected] : lalashimul :
বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০১:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
পাবনায় সরকারি ঘরের জন্য গৃহহীন নারীর কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগ বাংলাদেশের পুরুষের চেয়ে নারীর গড় আয়ু চার বছর বেশি : ইউএনএফপিএ দারুণ একটা দিন কাটাল বাংলাদেশ শেরপুরে মেডিকেল এ্যাসিস্ট্যান্টকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদে রাস্তা অবরোধ, যুবক আটক সুন্দরগঞ্জে করোনার ২য় ডোজ নিয়ে মুত্যুর মুখে পতিত হলো গ্রাম পুলিশ নিজাম লক্ষ্মীপুর বিসিক শিল্প নগরীতে ঘি কারখানা তালা ! শষী ভূষন নাথের বিরুদ্ধে মামলা হেফাজত কর্তৃক পবিত্র ধর্ম ইসলামকে কলংকিত করার প্রতিবাদে সাংবাদ সম্মেলন ঢাকায় এসেছে মেট্রোরেলের বগি হজ-টিকার কাজে এনআইডি সেবায় অগ্রাধিকার দেবে ইসি সহযোগিতার আবেদন হাটহাজারী মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষের

আগস্টে বিশ্বসেরা বাংলাদেশের পুঁজিবাজার

রিপোর্টার
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১৯৫ বার দেখা হয়েছে

নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশের পুঁজিবাজার গত আগস্ট মাসে বিশ্বের মধ্যে সব থেকে ভালো পারফরম্যান্স করেছে। ১৫ দশমিক ৮০ শতাংশ উত্থান নিয়ে আগস্ট মাসে বাংলাদেশের পুঁজিবাজার বিশ্বে প্রথম হয়েছে। অন্যদিকে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ভিয়েতনামের পুঁজিবাজারে ১০ দশমিক ৪০ শতাংশ উত্থান হয়েছে। তৃতীয় স্থানে থাকা রোমানিয়ার পুঁজিবাজারে উত্থান হয়েছে ৭ দশমিক ৪০ শতাংশ। বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠান ব্র্যাক ইপিএলের প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে এসেছে।
ব্র্যাক ইপিএল স্টক ব্রোকারেজ হাউজের ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আহসানুর রহমান রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ‘বিশ্বের বিভিন্ন শেয়ারবাজারের তথ্য উপাত্ত যাচাই করে দেখা গেছে গত আগস্টে বাংলাদেশের পুঁজিবাজার বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে ভালো করেছে। এ সময় বাংলাদেশের পুঁজিবাজার ১৫ দশমিক ৮০ শতাংশ উথান হয়েছে। অন্য কোনো দেশের শেয়ারবাজারে এই সময়ে এই রকম উত্থান ঘটেনি।’
তিনি বলেন, ‘আর এই উত্থানের পিছনে বাংলাদেশ পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসির বেশ ভালো ভূমিকা ছিল। বিশেষ করে একটি কঠিন সময়ে বিএসইসির চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল ইসলাম। তিনি দায়িত্ব গ্রহণের পর বেশ কিছু ইতিবাচক পদক্ষেপ নিয়েছেন। বিশেষ করে সিকিউরিটিজ আইন লঙ্ঘনের কারণে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে শক্ত পদক্ষেপ নিয়েছেন। এছাড়া বেশকিছু প্রতিষ্ঠানের আইপিও আবেদন বাতিল করে দিয়েছেন। এসব কারণে পুঁজিবাজারের প্রতি সাধারণ মানুষের আস্থা ফিরেছে। এছাড়া একই ধরনের তথ্য উঠে এসেছে ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনেও।’
এদিকে ব্র্যাক ইপিএলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনাকালে লকডাউনের সময় বাংলাদেশের অর্থনীতি একধরনের চাপে ছিল। এই সময়ে দেশে আমদানি ও রফতানি কমলেও শক্ত অবস্থানে ছিল প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স। এছাড়া তৈরি পোশাক খাতে রফতানি আদেশ বাড়ায় এবং রেমিট্যান্সের গতি অব্যাহত থাকায় অর্থনীতিতে এখন স্বাভাবিকতা দেখা যাচ্ছে। বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ রেকর্ড ৩৯ বিলিয়ন ডলার হয়েছে- বলেও ব্র্যাক ইপিএলের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।
প্রতিবেদতনে আরও বলা হয়, গত মে মাসের শেষে পুঁজিবাজারে পুনরায় লেনদেন চালুর পর ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স ২০ শতাংশ বেড়েছে। টেলিকম, ব্যাংক, ফার্মাসিউটিক্যালস, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি এবং প্রকৌশল খাত ভালো অবস্থানে রয়েছে। আগস্ট মাসে বাংলাদেশের পুঁজিবাজারের ১৫ দশমিক ৮০ শতাংশ উত্থান হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ভিয়েতনাম ১০ দশমিক ৪০ শতাংশ এবং রোমানিয়ার পুঁজিবাজারে ৭ দশমিক ৪০ শতাংশ উত্থান হয়েছে।
ব্রাক ইপিএলের প্রতিবেদনে, পুঁজিবাজারে উত্থানের জন্য বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবাইয়াত-উল ইসলামের প্রশংসা করা হয়েছে। এতে বলা হয়, একটি কঠিন সময়ে বিএসইসির চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করে সিকিউরিটিজ আইন লঙ্ঘনের কারণে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে শক্ত পদক্ষেপ নিয়েছেন। বেশকিছু প্রতিষ্ঠানের আইপিও আবেদন বাতিল করেছেন।
এদিকে ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আগস্ট মাসে এশিয়ার শেয়ারবাজার উত্থান হয়েছে। এরমধ্যে বাংলাদেশের শেয়ারবাজারে সবচেয়ে বেশি ১৫ দশমিক ৮০ শতাংশ উত্থান হয়েছে। যা বিশ্বের শেয়ারবাজারেও সেরা পারফর্ম।
অন্যদিকে ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনেও, আগস্ট মাসে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের ব্রড ইনডেক্স বেড়েছে ১৫ দশমিক ৮০ শতাংশ। যা এশিয়ারসহ বিশ্বের সেরা পারফরম্যান্স। বাংলাদেশের পরে এশিয়ার মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ উত্থান হয়েছে ভিয়েতনামের ভিএন সূচকে। গত আগস্ট মাসে সূচকটি বেড়েছে ১০ দশমিক ৪০ শতাংশ। এশিয়ার মধ্যে তৃতীয় স্থানে রয়েছে পাকিস্তান, দেশটির কেএসই-১০০ সূচক বেড়েছে ৪ দশমিক ৭০ শতাংশ। এছাড়াও মূল্য-আয় অনুপাত (পিই) বিবেচনায় বাংলাদেশের পুঁজিবাজারকে বিনিয়োগের জন্য আকর্ষণীয় বলে উল্লেখ করেছে ব্লুমবার্গ।
ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৬ দশমিক ৫০ মূল্য আয় (পিই) নিয়ে সবচেয়ে বিনিয়োগযোগ্য অবস্থায় রয়েছে এশিয়ার কাজাগিস্তান, দ্বিতীয় স্থানে থাকা পাকিস্তানের বাজারে পিই ৭ দশমিক ৫০ পয়েন্ট। এছাড়াও শ্রীলঙ্কার পুঁজিবাজারের পিই ৮ দশমিক ৯০ পয়েন্ট এরবং ১১ দশমিক ৮০ পিই নিয়ে চতুর্থ স্থানে রয়েছে বাংলাদেশের পুঁজিবাজার।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি