1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
সোমবার, ২৭ জুন ২০২২, ০৫:৪৩ অপরাহ্ন

আগুনে মরা ব্যক্তির জন্য শাহাদাতের মর্যাদা

রিপোর্টার
  • আপডেট : সোমবার, ৬ জুন, ২০২২
  • ২৩ বার দেখা হয়েছে

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শোকের মাতম। টাইমলাইনজুড়ে বিমর্ষ জনতার হাহাকারধ্বনি। চট্টগ্রামের সীতাকুন্ডে একটি কনটেইনার ডিপোতে ভয়াবহ বিস্ফোরণ হয়েছে। শনিবার রাত ১১টার দিকে এই বিস্ফোরণে এখন পর্যন্ত নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫০ জনে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন দুই শতাধিক। হতাহত ব্যক্তিদের মধ্যে ডিপোর শ্রমিকদের পাশাপাশি পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যও রয়েছেন।   ইসলামের দৃষ্টিতে আগুনে পুড়ে মারা যাওয়া মুসলমান শহীদ। তারা শাহাদাতের মর্যাদা পাবেন। তাদের পরিবার-পরিজন এবং আহত ব্যক্তিরা হবেন সবরকারী। আল্লাহ সবরকারীদের সঙ্গে আছেন।

হাদিস শরিফে আছে, জাবির ইবনে আতিক (রা.) থেকে থেকে বর্ণিত। নবীজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, আল্লাহর রাস্তায় যুদ্ধ করে শহীদ হয়েছে এরূপ ব্যক্তি ছাড়াও সাত শ্রেণির লোক শহীদের মর্যাদা পাবে। (১) মহামারিতে মৃত ব্যক্তি শহীদ (২) ডুবে মারা গেছে এরূপ ব্যক্তি শহীদ (৩) জাতুল জানব বা শ্বাসকষ্টে যে মারা গেছে সে শহীদ (৪) পেটের রোগে মৃত ব্যক্তি শহীদ (৫) যে ব্যক্তি পুড়ে মারা গেছে সে শহীদ (৬) কোনো কিছু চাপা পড়ে মারা যাওয়া ব্যক্তি শহীদ এবং (৭) প্রসব কষ্টে মৃত নারী শহীদ।-(মুসনাদে আহমাদ ও আবু দাউদ)।

আর আগুনে পুড়ে নিহত হওয়ার ব্যাখ্যায় বলা হয়েছে, কেউ যদি আগুনের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময় আগুনের উত্তাপ অনুভব করে এবং সে সাধারণ উত্তাপের ফলে রক্তচাপজনিত কারণ কিংবা অন্য কোনো কারণে মারা যায়, তাহলে তাকে শহীদ বলা হবে না। কিন্তু যদি সে আগুনের মধ্যে পড়ে যায়, আগুনে ঝলসে যায় বা পুড়ে যায়, তা হলে সে শহীদ। বিদ্যুতের ক্ষেত্রেও আগুনের বিধান। (নিহায়া, জাওয়াহিরুল ফতোয়া)। হজরত আবুল আওয়ার সাইদ ইবনে যায়েদ ইবনে আমর ইবনে নুফায়ল (পৃথিবীতে জান্নাতের সুসংবাদপ্রাপ্ত ১০ সাহাবির অন্তর্ভুক্ত) বর্ণনা করেন, আমি রসুলকে বলতে শুনেছি, যে ব্যক্তি তার ধন-সম্পদের হেফাজতের কারণে নিহত হয়েছেন তিনি শহীদ।

আর যে ব্যক্তি নিজের জীবনের হেফাজতের কারণে নিহত হয়েছেন তিনিও শহীদ। যে ব্যক্তি স্বীয় দীনের হেফাজতকালে নিহত হয়েছেন তিনিও শহীদ আর যে ব্যক্তি নিজের স্ত্রী-সন্তানদের হেফাজতকালে নিহত হয়েছেন তিনিও শহীদ। (সুনানে তিরমিযি ও আবু দাউদ)। ব্যবসায়ীদের সম্পর্কে এক হাদিসে নবীজি বলেছেন, সৎ ও বিশ্বস্ত ব্যবসায়ীরা হাশরের ময়দানে নবী, সিদ্দীক ও শহীদগণের সঙ্গে থাকবেন।

হজরত আমর ইবনুল আস (রা.) বলেন, রসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, ‘ঋণ ছাড়া শহীদের সব গুনাহ শাহাদত প্রাপ্তির কারণে ক্ষমা হয়ে যায়।’ অর্থাৎ মহান আল্লাহ ঋণ ছাড়া শহীদের ছোট বড় সব গুনাহ ক্ষমা করে দেন। প্রতিটি মৃত্যুই দুঃখজনক। মৃত্যুর হাত থেকে কেউই বাঁচতে পারবে না। দুই দিন আগে পরে আমরা সবাই মৃত্যুপথের যাত্রী। আসুন, সব সময় মৃত্যুর জন্য প্রস্তুত থাকি। ইমান সুদৃঢ় রেখে আমলের পথে অগ্রগামী হই। সীতাকুন্ডসহ বিভিন্ন জায়গায় আগুনে পুড়ে মারা যাওয়া ব্যক্তিদের আল্লাহ শাহাদাতের মর্যাদায় আসীন করুন। জান্নাতের সুউচ্চ মাকাম দান করুন।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি