Warning: Creating default object from empty value in /home/jatioart/public_html/wp-content/themes/NewsFreash/lib/ReduxCore/inc/class.redux_filesystem.php on line 29
ঈশ্বরদীতে সরিষার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা – দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি
  1. bdweb24@gmail.com : admin :
  2. arthonite@gmail.com : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:৩৫ পূর্বাহ্ন

ঈশ্বরদীতে সরিষার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

জাহিদুল ইসলাম নিক্কন
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ১১৫ বার দেখা হয়েছে

জাহিদুল ইসলাম নিক্কন,ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধিঃ

পাবনার ঈশ্বরদীতে অধিকাংশ সরিষা ক্ষেতে ফুল ফুটেছে। ইতিমধ্যে অনেক ক্ষেতে সুন্দর বীজও আসতে শুরু করেছে। পরিপাক্ব হতে শুরু করেছে এতে বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা দেখছেন কৃষকরা। অধিক লাভের আশায় তাদের মুখে এখন হাসি ফুটেছে। উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের মাঠে মাঠে এখন সরিষার আবাদ দেখা গেছে। মাঠ জুড়ে সরিষা ফুলের নয়নাভিরাম দৃশ্য দেখা যায়। ফুলে ফুলে মধু আহরণে ভিড় করছে মৌমাছি। আমন ফসল ঘরে তোলার পর স্বল্প সময়ে সরিষা একটি লাভজনক ফসল হওয়ায় এখন বাণিজ্যিকভাবে সরিষা চাষ অতিরিক্ত ফসল হিসেবে সরিষা চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষকরা।ঈশ্বদীর উপজেলা কৃষি বিভাগ সূত্রে জানা যায়,উপজেলার ১৭৫০ হেক্টর জমিতে এ বছর সরিষা চাষ হচ্ছে। প্রাকৃতিক পরিবেশ অনুকূলে থাকায় চলতি মৌসুমে অন্যান্য বছরের তুলনায় এবার সরিষা চাষে বাম্পার ফলনের আশা করছেন কৃষক। এতে করে প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে আনন্দে হাঁসি ফুটেছে, সাঁড়া গোপাল পুর মাঠের কৃষক তাহের আলী বলেন, আমন ধান কাটার পর জমিতে সরিষা চাষ করছেন, গত বারের থেকে এ বছর ভালো ফলন হবে বলে তিনি আশাবাদী। এ বছর বিঘা প্রতি ৫ থেকে ৬ হাজার টাকা খরচ করেছি, কম খরচ ও অল্প দিনের পরিচর্যার মাধ্যমে অধিক লাভবান হওয়া যায় সরিষা চাষে। তাই ধান কাটার পর জমিতে সরিষা চাষ করছি,ঈশ্বরদী উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মিতা রানী সরকার বলেন, এবছর উচ্চ ফলনশীল জাতের বারি ৯,বারি ১৪, বারি ১৫, বারি ১৭, বারি ১৮ জাতের সরিষা চাষ হচ্ছে। এ বছর চাষিরা যেন অধিক লাভবান হতে পারে সেজন্য বিনা ৪ ও ৯’ জাতের সরিষার বীজ দেওয়া হয়েছে, গত বছর কৃষকরা সরিষার মূল্য ভালো পেয়েছে, এতে সরিষা চাষে আগ্রহ বেড়েছে কৃষকদের। এ বছর সরিষার বাম্পার ফলন হবে বলে জানান এই কৃষি কর্মকর্তা।

 

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি