1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
সোমবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:৫১ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
দলের হারে তোমায় কাঁদতেও তো দেখেছি: আনুশকা ষড়যন্ত্রকারীদের রুখে দিতে হবে: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী যৌথ অবকাঠামো ব্যবহার, বাংলালিংক-টেলিটক সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর টাঙ্গাইল-৭ আসনের উপ-নির্বাচনে বিজয়ী শুভ শাবিপ্রবি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গেমিং অ্যাপ ‘আমার বঙ্গবন্ধু’ বিচারপতি টিএইচ খান আর নেই মানুষের জন্য কাজ করব বলে রাজনীতিতে এসেছি : শিক্ষামন্ত্রী বাংলাদেশকে সার্কুলার ইকোনমি মডেল অনুসরণ করতে হবে : শিল্পমন্ত্রী নাসিক নির্বাচনে আইভীর হ্যাটট্রিক জয় করোনায় আরও ৮ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৫,২২২ ই-বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় সরকার কাজ করছে : পরিবেশমন্ত্রী ১৫ ফেব্রুয়ারি শুরু বইমেলা ১ সপ্তাহে করোনা শনাক্ত ২২২ শতাংশ বেড়েছে: স্বাস্থ্য অধিদফতর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের কথা ভাবছি না : শিক্ষামন্ত্রী

করোনার মধ্যে আইপিএল কেন, সৌরভদের বিরুদ্ধে ১০০০ কোটির মামলা

স্পোর্টস ডেস্ক
  • আপডেট : বুধবার, ৫ মে, ২০২১
  • ৯১ বার দেখা হয়েছে

সৌরভ গাঙ্গুলী ভালোই বিপদে পড়েছেন। আইপিএল স্থগিত করতে হয়েছে করোনার কারণে। এবার তিনি পড়ে গেছেন ১০০০ কোটি রুপির জনস্বার্থ মামলার খপ্পরে। মামলাটা মূলত হয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) বিরুদ্ধে। কিন্তু সভাপতি হিসেবে তিনি দায় এড়ান কী করে!

মামলাটা বোম্বে (মুম্বাই) হাইকোর্টে দায়ের করেছেন আইনজীবী বন্দনা শাহ। ভারতজুড়ে যখন করোনাভাইরাস প্রতিদিন অগণিত মানুষকে আক্রান্ত করছে, হাজার হাজার মানুষ মারা যাচ্ছে, বড় বড় শহরের হাসপাতালে শয্যাসংকটে যখন সাধারণ চিকিৎসাটুকুও মানুষ পাচ্ছে না, অক্সিজেনের অভাব, নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রের অভাব যখন ভারতজুড়ে হাহাকারের জন্ম দিয়েছে, ঠিক তখন বিসিসিআই কর্তারা কীভাবে আইপিএলের মতো একটা আনন্দ-আয়োজন চালিয়ে যেতে পারলেন, মামলার বিষয় এটিই।

মামলার আরজিতে বলা হয়েছে, বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী যেন ১০০০ কোটি রুপি করোনায় আক্রান্ত মানুষের চিকিৎসাসেবায় ব্যয় করেন। এই টাকা দিয়ে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র তৈরি, অক্সিজেনের ঘাটতি মেটানো ও ওষুধ বা টিকার পেছনে ব্যয় করতে বলা হয়েছে।

করোনায় ভারতের জেরবার অবস্থায় কেন আইপিএল হচ্ছে—এ নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছিল। মজার ব্যাপার হচ্ছে, আইপিএল নিয়ে সাবেক কিংবা বর্তমান কোনো ভারতীয় ক্রিকেটারই কোনো টুঁ শব্দ করেননি। এটি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন বিদেশি ক্রিকেটাররাই।

অলিম্পিকে ভারতের হয়ে একমাত্র ব্যক্তিগত সোনাজয়ী শুটার আই এস বিন্দ্রা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছিলেন, করোনায় যখন গোটা দেশ পর্যুদস্ত, তখন আইপিএল চালিয়ে যাওয়ার মানেই হলো বিসিসিআই কর্তারা চোখ বন্ধ করে রেখেছেন।

সমালোচনার মুখেও আইপিএলের সূচি অনুযায়ী চালিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে বদ্ধপরিকর ছিলেন বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলী। সে অনুযায়ীই সবকিছু হচ্ছিল।

সমালোচনা আর কোভিড উপেক্ষা করেই আইপিএল চলছিল। কিন্তু ঝামেলা বাধে দুই দিন আগে কলকাতা নাইট রাইডার্সের দুই ক্রিকেটার করোনায় আক্রান্ত হয়ে যাওয়ার পর। এরপরই খবর আসে চেন্নাই সুপার কিংসের বোলিং কোচসহ আরও তিন সাপোর্ট স্টাফের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার। আট ফ্র্যাঞ্চাইজির চারটিতেই করোনা হানা দেওয়ার পর আইপিএল স্থগিত করে দিতে বাধ্য হয় বিসিসিআই।

সূত্র : প্রথম আলো

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি