1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
শনিবার, ২১ মে ২০২২, ১০:২৫ অপরাহ্ন

করোনায় দুই ভাইকে হারালেন দীলিপ কুমার

রিপোর্টার
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৪৩৭ বার দেখা হয়েছে

করোনা কেড়ে নিল বলিউডের কিংবদন্তি অভিনেতা দিলীপ কুমারের দুই ভাইয়ের প্রাণ। ১৩ দিন আগে হারিয়েছিলেন ছোট ভাই আসলাম খানকে। এবার মারা গেলেন বড় ভাই এহসান খান। আইসোলেশনে রয়েছেন দিলীপ কুমার নিজেও।

বৃহস্পতিবার ৯০ বছরের এহসান খানের মৃত্যুর খবর জানান অভিনেতার পারিবারিক বন্ধু ফয়জল ফারুকি। আসলামের মৃত্যুর খবরও তিনিই দিয়েছিলেন। দিলীপ কুমারের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে টুইট করে তিনি বলেন, “দিলীপ সাবের বড় ভাই এহসান খান কয়েক ঘণ্টা আগে মারা গিয়েছেন। এর আগে তাঁর ছোট ভাই আসলাম খানেরও মৃত্যু হয়েছে। আল্লাহর কাছে তাঁদের আত্মার শান্তি প্রার্থনা করছি।”

গত ২১ অগস্ট করোনা আক্রান্ত হয়ে দিলীপ কুমারের ছোট ভাই আসলাম খানের মৃত্যু হয়। ৮৮ বছর বয়স হয়েছিল তাঁর। দিলীপ কুমারের পারিবারিক বন্ধু ফয়জল ফারুকি টুইট করে বলেন, দিলীপ সাহেবের ছোট ভাই আসলাম খান এদিন সকালে লীলাবতী হাসপাতালে প্রয়াত হয়েছেন। আমরা ভগবানের কাছে ওনার আত্মার শান্তি কামনা করছি।

১৫ অগস্ট শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন দিলীপ কুমারের দুই ভাই এহসান খান ও আসলাম খান। পরে তাঁদের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। ছ’দিন পরেই মৃত্যু হয় আসলাম খানের। এবার ৯০ বছরের এহসান খানও মারা গেলেন।

চলতি বছর মার্চ মাস থেকেই আইসোলেশনে রয়েছেন অভিনেতা দিলীপ কুমার। ৯৭ বছর বয়স হওয়ায় কড়া সতর্কতায় রাখা হয়েছে তাঁকে। জনতা কার্ফুর কয়েক দিন আগে নিজেই টুইট করে অভিনেতা জানান, আমি সম্পূর্ণ আইসোলেশন ও কোয়ারেন্টিনে রয়েছি। সায়রা আমাকে নিয়ে কোনও রকমের সুযোগ নিতে চায়নি। আমার যাতে কোনওভাবেই সংক্রমণ না হয় তা নিশ্চিত করা হয়েছে।

আরও একটি টুইট করে নিজের ভক্তদেরও সতর্ক থাকতে অনুরোধ করেন বলিউডের এই কিংবদন্তি। তিনি বলেন, আমি আপনাদের সবার কাছে অনুরোধ করছি, নিজেদের ও অন্যদের সুরক্ষিত রাখুন। যতটা পারবেন বাড়ির মধ্যে থাকুন। এই করোনাভাইরাস সব সীমান্ত ভেঙে দিয়েছে। তাই স্বাস্থ্যমন্ত্রক যে নির্দেশ দিচ্ছে তা মেনে চলুন। নিজের সঙ্গে সঙ্গে অন্যদেরও সুরক্ষিত রাখুন।

জাতীয় পুরস্কার প্রাপ্ত অভিনেতা দিলীপ কুমারের আসল নাম অবশ্য ইউসুফ খান। বলিউডে তিনি দিলীপ কুমার নামেই পরিচিত। ক্যারিয়ারে ১০০-র বেশি ছবিতে কাজ করেছেন তিনি। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো কোহিনুর, মুঘল-এ-আজম, শক্তি, নয়া দউর, রাম অউর শ্যাম, জুগনুর মতো ছবি। পদ্মভূষণ ও পদ্মবিভূষণ পুরস্কারেও ভূষিত করা হয় এই অভিনেতাকে।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি