1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮:৪১ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
করোনায় আরও ৩৫ মৃত্যু, শনাক্ত ১,১৯০ পাকিস্তান ক্রিকেটকে খুন করল নিউজিল্যান্ড : শোয়েব আক্তার সংবিধানের আলোকেই আগামী দিনের নির্বাচন : কৃষিমন্ত্রী মাস্ক ছাড়াই যুক্তরাজ্যের মন্ত্রিসভার বৈঠক গ্রহণযোগ্য পন্থায় নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে : ওবায়দুল কাদের জলবায়ু নিয়ন্ত্রণে বিশ্ব নেতাদের প্রতি বাইডেনের আহ্বান মা হচ্ছেন কাজল চীন থেকে এলো সিনোফার্মের আরও ৫০ লাখ টিকা মোদির জন্মদিনে রেকর্ড দুই কোটি টিকা প্রয়োগ ভারতের শিক্ষা আন্দোলনের শহীদদের প্রতি মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন ঠাকুরগাঁও জেলা জাতীয় ছাত্র সমাজের আলোচনা ও পরিচিতি সভা মাহফুজ আনাম ও শাহীন আনামের কুশপুত্তলিকা দাহ হিন্দু মহাজোটের ই-কমার্সের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা : ডিএমপি প্রধান চীন থেকে এলো সিনোফার্মের আরও ৫০ লাখ টিকা রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৬০

ঝিনাইদহে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠিখেলা অনুষ্ঠিত

রিপোর্টার
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৭ বার দেখা হয়েছে
ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহের হরিনাকুন্ডুতে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠিখেলা অনুষ্ঠিত । উপজেলার ঘোপ পাড়া বিন্নি গ্রামে   অনুষ্ঠিত হয় ঐতিহ্যবাহী এই খেলা। খেলার আয়োজনকে ঘিরে স্থানীয়দের মাঝে ছিল উৎসবের আমেজ। লকডাউন শেষে করোনা সংক্রমন কম হওয়ায় অনেক দিনপর এমন খেলা দেখে উচ্ছুক জনতার ভিড়।
সকাল থেকেই ঘোপ পাড়া বিন্নি গ্রামে দুর-দুরান্ত থেকে ছুটে আসে নানা বয়সী মানুষ। ঢাক, ঢোল আর কাঁসার ঘন্টার শব্দে উৎসব মুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয় চারপাশ। প্রথমে বাদ্যের তালে তালে অঙ্গভঙ্গি প্রদর্শন করে লাঠিয়ালরা। এরপরই শুরু হয় মুল আকর্ষণ। ২ জন লাঠিয়াল শব্দের তালে তালে ঝাপিয়ে পড়েন অন্যের উপর। আর নিজেকে রক্ষা করে পাল্টা আঘাত করার সুযোগ ছাড়েন না অপরজন। এসব দৃশ্য দেখে উচ্ছ¡সিত হয়ে ওঠেন দর্শকরা। যা দেখতে ভিড় করে নানা বয়সের  মানুষ। করোনা আর লকডাউনে মানুষের মাঝে ছিলো না কোন আনন্দ বিনোদন তাই অনেক দিনপর এমন খেলা দেখে খুশি দর্শকরা। হারিয়ে যাওয়া এই ঐতিহ্য বাঁচিয়ে রাখতে এই ধরনের আয়োজন করার দাবি করেন দর্শকরা।খেলা দেখতে আসা দর্শনার্থী হরিছন নেছা জানান আমি গত তিন বছর আগে এই খেলা দেখেছি এমন খেলা যেন প্রতিবছর হয় । অন্যদিকে খেলোয়াড় শহিদুল ইসলাম বলেন আমি ৯ বছর থেকে এই খেলা করে আসছি গ্রামের ঐতিয্য কে ধরে রাখার জন্যই করোনার কারনে দীর্ঘ দিন বন্ধ থাকার পর আমরা এখন আবার নতুন করে শুরু করেছি তবে সরকার যদি আমাদের সহযেগিতা করত তা হলে আমরা খেলাটা কে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে পারতাম ।
খেলার আয়োজক ফারুক হসেন জানান গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী এই খেলা প্রায় বিলুপেবতর পথে প্রতি বছর আমরা যুব সমাজ এই খেলা আয়োজন করে থাকি । কিন্তু করোনার কারনে কয় এক বছর করতে পারে নাই তবে এখন থেকে প্রতি বছর হারানো ঐতিহ্য ধরে রাখতেই এই আয়োজন করব ।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি