1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ১০:৩৮ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
অশ্লীলতার মামলায় খালাস পেলেন শিল্পা শেঠি নির্বাচন নিয়ে বিএনপির সুনির্দিষ্ট কোনো রূপরেখা নেই: কাদের প্রকাশ্যে এসে কাঁদতে কাঁদতে অনেক কথা বললেন পপি করোনায় আরও ১৭ মৃত্যু, শনাক্ত ১৫,৫২৭ নন-ক্লোজার এগ্রিমেন্টে ভ্যাকসিন কেনা হয়েছে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী ওমিক্রনের ঝুঁকি এখনো অনেক বেশি : ডব্লিওএইচও সমন্বিত ৫ ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত বিনামূল্যে টিকা দেওয়ার বিষয়টি অগ্রাধিকার দিয়েছি : প্রধানমন্ত্রী রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৬৬ নির্বাচন কমিশন গঠন বিলের রিপোর্ট সংসদে উত্থাপন প্রিয়াংকা মা হওয়ায় দুশ্চিন্তায় প্রযোজকরা নেদারল্যান্ডসকে হোয়াইটওয়াশ করল আফগানিস্তান ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবস আজ অবশেষে অনশন ভাঙলেন শাবি শিক্ষার্থীরা ওমিক্রন প্রতিরোধী ফাইজারের নতুন টিকার ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু

ডাম্পিং এ নষ্ট হচ্ছে হাজার হাজর অটো গাড়ির সিট

এম এ হানিফ রানা
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল, ২০২১
  • ২২৬ বার দেখা হয়েছে

জেলা প্রতিনিধি গাজীপুর : গাজীপুরের বিআরটিসি গেট সংলগ্ন ডাম্পিং ১ ইউনিট। যেখানে গেলে দেখা মিলবে বিস্তর মাঠে এভাবেই অযত্নে অবহেলায় পড়ে আছে হাজার হাজার অটোরিকশার সিট এবং অনেক বাস, সিএনজি, মোটরসাইকেল সহ অনান্য যানবাহনগুলো। এগুলোর কোনটার হয়তো সঠিক কাগজ নেই আবার কোনটার ট্রাফিক আইন অমান্য থেকে শুরু করে লকডাউনের খেসারত। গাজীপুরের চৌরাস্তা থেকে ঢাকা রোডের সাইনবোর্ড পর্যন্ত, চৌরাস্তা হতে বাসন থানার সীমানা আর ময়মনসিংহ রোডের রাজেন্দ্র পুর পর্যন্ত। এদিকে চৌরাস্তা হতে তিন সড়ক, শীববাড়ী, রেলক্রসিং, জোড়পুকুর পর্যন্ত হলো ডাম্পিং ১ এর আওতাধীন এলাকা। এই সমস্ত রোডের গাড়ির কাগজপত্রের সমস্যার কারনে আটককৃত গাড়ি গুলোর ঠিকানা হয় ডাম্পিং ১ এর ইউনিটে। এখানে সাধারণত বিভিন্ন মেয়াদের শাস্তি সরুপ গাড়ি গুলো রাখা হয়। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় অনেক গাড়ী ঝং ধরে গেছে এবং নস্ট হয়ে যাচ্ছে। সর্বশেষ লকডাউন এবং এই মাসের হিসাবে জানতে চাইলে কথা হয় দ্বায়িত্বে থাকা কনস্টেবল মোঃ মনির হোসেন এর সাথে। তিনি বলেন আমরা এখানে ৫ জন দ্বায়িত্ব পালন করি সময় মেনটেন করে। একজনের দ্বায়িত্ব শেষ হলে আরেকজনের কাছে সমস্ত হিসাব বুজিয়ে দেয়া হয়।

সোমবার ২০ এপ্রিল সারে বারোটা পর্যন্ত ডাম্পিং ১ এ অটোরিকশার সিট  আটক করেছেন ১২৭৩ টা। যেখানে সিএনজি পরে আছে ১০ টার মতো এবং বাস আছে কয়েকটা। কিছু ট্রাক এবং মোটরসাইকেল সহ অনান্য বাহনও আছে। এই সিটগুলোর বেশিরভাগই জমা হয়েছে গত ৭ দিনের লকডাউনের সময়ে। আগের বিভিন্ন সময় আটককৃত সিটগুলো নস্ট করে ফেলা হয়। এবারও হয়তো তার ব্যাতিক্রম হবে না। হয়তোবা পুরিয়ে ফেলা হতে পারে এই সিটগুলো।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি