1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
  3. [email protected] : lalashimul :
বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৫৯ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৯৮ জনের মৃত্যু ফের ‘শিশুবক্তা’ রফিকুল ইসলাম মাদানী ৭ দিনের রিমান্ডে শেষ কার্যদিবসে সূচকের মিশ্র প্রবণতায় চলছে লেনদেন শ্রমিক হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে ও খাদ্যের দাবিতে বাংলাদেশ হকার্স ইউনিয়নের বিক্ষোভ যারা এতিমদের পুঁজি করে ব্যক্তিস্বার্থ চরিতার্থ করেন তারা অবশ্যই পাপী : মনোরঞ্জন শীল গোপাল নিজগৃহে “পরবাসী” দৃষ্টিপ্রতিবন্দী শান্ত  বাঁশখালীতে নিহত শ্রমিকদের পরিবারকে ৩ কোটি টাকা করে দিতে রিট প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগে প্রস্তুতি নেবেন যেভাবে প্রতিষ্ঠানের নামে সঞ্চয়পত্র বিক্রি করতে পারবে না ব্যাংক-পোস্ট অফিস করোনা রোগী বাড়লে আর সামাল দেওয়া সম্ভব হবে না : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

দরিদ্র মানুষ যেন বিনামূল্যে ভ্যাকসিন পায় সেটি নিশ্চিত করতে হবে

রিপোর্টার
  • আপডেট : সোমবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২০১ বার দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ (জি এম) কাদের বলেছেন, করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন বের হলেই যেন দেশের প্রতিটি হতদরিদ্র মানুষ বিনামূল্যে পায় সেটি নিশ্চিত করতে হবে।
সোমবার বনানীতে পার্টি চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তর আয়োজিত অসুস্থ ও দুস্থ নেতাকর্মীদের মাঝে আর্থিক সহায়তার চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
জি এম কাদের বলেন, ভ্যাকসিনের ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী আশ্বস্ত করেছেন, আমরা প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে আশ্বস্ত। কিন্তু যাদের পয়সা আছে তারা ভ্যাকসিন পাবে আর যাদের নেই তারা ভ্যাকসিন পাবে না, এমন পরিস্থিতি যেন না হয়।
জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের আরও বলেন, প্রতিটি সরকারি হাসপাতালে করোনাভাইরাসের চিকিকিসাসেবা নিশ্চিত করতে হবে। যে সকল হাসপাতালে করোনা চিকিৎসাসেবা আছে সেগুলোকে আরও শক্তিশালী করতে হবে। আর যে সকল হাসপাতালে করোনা ইউনিট নেই, সে হাসপাতালগুলোতে করোনা ইউনিট জরুরি ভিত্তিতে চালু করতে হবে।
তিনি বলেন, করোনা নিয়ে দেশের মানুষ মারাত্মক বিভ্রান্তিতে আছে। কেউ জানে না করোনা সংক্রমণ বেড়েছে নাকি কমেছে। আবার করোনায় মৃত্যুহার বেড়েছে নাকি কমেছে তাও পরিষ্কার নয়। স্বাস্থ্যবিভাগ বলছে, করোনা ইউনিট ফাঁকা, চিকিৎসাসরঞ্জাম অব্যবহৃত পড়ে আছে। কিন্তু এখনো করোনা আক্রান্ত রোগী নিয়ে মানুষের হাসপাতালে হাসপাতালে ছোটাছুটির সংবাদ পাওয়া যাচ্ছে। এতে স্বাস্থ্যবিভাগের কাজের সমন্বয়হীনতা পরিষ্কারভাবে ফুটে উঠেছে।
জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান উল্লেখ করে বলেন, করোনা সংক্রমণের শুরু থেকেই জাতীয় পার্টি সাধারণ মানুষের পাশে আছে। সচেতনতা সৃষ্টিতে মাস্ক ও লিফলেট বিতরণ করেছে। এছাড়া সারাদেশে নেতাকর্মীরা অসহায় এবং দুস্থদের মাঝে খাদ্যসহায়তা পৌঁছে দিয়েছে। জাতীয় পার্টি শক্তিশালী টেলিমেডিসিন টিম করে সাধারণ মানুষকে এখনো চিকিৎসা সহায়তা দিচ্ছে। এছাড়া নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওসহ বিভিন্ন এলাকায় পার্টির নেতাকর্মীরা করোনায় মৃত ব্যক্তিদের দাফন করতে টিম করেছে।
জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এবং প্রেসিডিয়াম সদস্য এসএম ফয়সল চিশতীর সভাপতিত্বে সভায় উপস্থিত ছিলেন প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট মো. রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তফা আল মাহমুদ, জাহাঙ্গীর আলম পাঠান, সাংগঠনিক সম্পাদক হাজী নাসির উদ্দিন সরকার, মো. হেলাল উদ্দিন, সৈয়দ মঞ্জুর হোসেন মঞ্জু, মো. আনোয়ার হোসেন তোতা, মো. আনিস উর রহমান খোকন, সমাজকল্যাণ সম্পাদক এম এ রাজ্জাক খান, যুগ্ম দফতর সম্পাদক সমরেশ মন্ডল মানিক, নির্বাহী সদস্য মো. ইব্রাহীম খান, নজরুল ইসলাম সরদার, মো. আব্দুস সাত্তার প্রমুখ।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি