1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
  3. [email protected] : lalashimul :
রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০১:১৯ পূর্বাহ্ন

নতুন মৌসুমে নামার আগে ‘মন খারাপ’ মেসির

রিপোর্টার
  • আপডেট : রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১৯৩ বার দেখা হয়েছে

স্পোর্টস ডেস্ক : আগস্টের শেষদিকে জোর গুঞ্জন শুরু হয়েছিল লিওনেল মেসির বার্সেলোনা ছেড়ে যাওয়ার বিষয়ে। প্রায় সপ্তাহ দেড়েকের নানান নাটকীয়তার পর আরও এক মৌসুম বার্সায় থেকে যেতে রাজি হয়েছেন মেসি। তবে মেসি থেকে গেলেও, বার্সেলোনা ছেড়ে চলে গেছেন মেসির প্রিয় বন্ধু লুইস সুয়ারেজ। যার বিদায়ে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছেন বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন জাদুকর।
বাংলাদেশ সময় রোববার দিবারাত ১টায় স্প্যানিশ লা লিগার নতুন মৌসুমে নিজেদের প্রথম ম্যাচ খেলতে নামবে বার্সেলোনা। পরপর দুই আসরে লা লিগার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর ২০১৯-২০ মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদের কাছে শিরোপা খুইয়েছে কাতালান ক্লাবটি। শিরোপা পুনরুদ্ধারের মিশনে আজ ভিয়ারিয়ালের মুখোমুখি হবে রোনাল্ড কোম্যানের শিষ্যরা।
কিন্তু এ ম্যাচের আগে মন খারাপ মেসির। প্রিয় বন্ধু সুয়ারেজকে অন্য ক্লাবকে যেতে দেখার শোক এখনও ঠিক কাটিয়ে উঠতে পারেননি বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা এ ফুটবলার। তবে মাঠে তার কাছ থেকে সেরাটা পাওয়ার আশাই করছেন বার্সেলোনার নতুন কোচ রোনাল্ড কোম্যান। ম্যাচ পূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে এমন আশার কথাই জানিয়েছেন বার্সা কোচ।
তার ভাষ্য, ‘এটা স্বাভাবিক যে প্রিয় বন্ধু ক্লাব ছেড়ে চলে যাওয়ায় সে (মেসি) কষ্ট পেয়েছে। তারা একসঙ্গে অনেক বছর খেলেছে। তবে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে সে অনুশীলন করছে এবং খেলবে। সে সবার কাছে এক উদাহরণ। তার মন খারাপ ঠিকই, তবে মাঠে ফেরার পর থেকে সে প্রচুর উদ্যম ও উৎসাহ দেখিয়েছে। যা কি না মাঠেও দেখতে পাবো আশা করছি।’
গুঞ্জন শোনা গিয়েছে, সুয়ারেজের বার্সেলোনা থেকে বিদায়ের মূল হোতা নতুন কোচ কোম্যানই। কেননা তিনি সংবাদমাধ্যমে সাফ বলেছিলেন, এখন আর আগের মতো দলের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় হিসেবে বিবেচিত হবেন না সুয়ারেজ। এমনকি আগের মতো নিয়মিত একাদশেও হয়তো সুযোগ মিলবে না তার। ফলে কোম্যানের দিকেই প্রশ্নের তীর ছুড়ে দিয়েছেন বার্সেলোনা সমর্থকরা।
এ বিষয়ে আত্মপক্ষ সমর্থন করে কোম্যান বলেছেন, ‘অনেকের ধারণা, এসব কিছুর মূলে আমি, কিন্তু তা ঠিক নয়। তাকে ( লুইস সুয়ারেজ) আমি সম্মান দেখিয়েছি। আমি তাকে বলেছিলাম, সম্ভবত সে অনেক বেশি সময় খেলার সুযোগ পাবে না। তবে সে থাকলে তার ওপর আমি আস্থা রাখতাম। এটা কেবল আমার সিদ্ধান্ত ছিল না, ক্লাবেরও সিদ্ধান্ত ছিল।’
এসময় তরুণ খেলোয়াড়দের অধিক সুযোগ দেয়ার পরিকল্পনার কথা জানিয়ে কোম্যান আরও বলেন, ‘অনেক তরুণ খেলোয়াড় আছে যাদের দলে জায়গা পাওয়ার সুযোগ আছে এবং এটাই ফুটবল। সুয়ারেজ ও আমি এখনও একে অপরকে সম্মান করি। সে চলে গেছে, আমি তার মঙ্গল কামনা করি।’

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি