1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ১১:১৫ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
উন্নত বাংলাদেশ গড়তে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি অপরিহার্য : রাষ্ট্রপতি একদিনে করোনায় আরও ৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৪৮০ ‘বঙ্গবন্ধুর খুনি রাশেদ চৌধুরীকে দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে’ বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে নতুন আইজিপির শ্রদ্ধা এক দিনে রেকর্ড ৬৩৫ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি দুর্গোৎসব অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি : ডেপুটি স্পিকার ৪ বছরেও সড়ক আইন বাস্তবায়নে বিধিমালা হয়নি : ইলিয়াস কাঞ্চন তোয়াব খান ছিলেন বাংলাদেশের সাংবাদিকতা জগতের পথিকৃৎ : রাষ্ট্রপতি ইরানে পুলিশ স্টেশনে হামলায় বিপ্লবী গার্ডসের কর্নেলসহ নিহত ১৯ এ বছর এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়নি : শিক্ষামন্ত্রী

নিরাপত্তাহীনতায় রোকছানাঃ গাইবান্ধার নশরতপুর যৌতুকের টাকার দাবীতে পাভেলের পরিবার কর্তৃক নির্যাতন

রানা রহমান
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১ জুলাই, ২০২১
  • ১৩৭ বার দেখা হয়েছে
গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ  গাইবান্ধা সদর উপজেলার নশরতপুরে যৌতুকের টাকার দাবীতে স্বামী  পাভেল ও তার পরিবার কর্তৃক রোকছানাকে  নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। এতে করে নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে  রোকছানা সহ তার পরিবার। পাভেলদের শাস্তির দাবী করে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন রোখছানার পরিবার।
সংবাদ সম্মেলন লিখিত বক্তব্যে রোকছানা জানান-রোখছানা গাইবান্ধা সদর উপজেলার নশরতপুরের ওবায়দুর রহমান মেয়ে এবং গাইবান্ধা সরকারি মহিলা কলেজের ১ম বর্ষের ছাত্রী। গত এক বছর আগে গাইবান্ধা শহরের খা পাড়ার মৃত আক্তার রহমান ছেলে ইফতেখার রহমান পাভেলের এর সাথে এক বছর আগে মোবাইল ফোনে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরে ২০২০ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর ৩ লক্ষ টাকা ও ৫ভরি সোনা দিয়ে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়৷ বিয়ের পর সুখেই সংসার করছিল। পরে পাভেল ও তার মা শামছুন্নাহার বেওয়া বিভিন্ন সময় বাড়ি ক্রয়ের অজুহাতে আমার পরিবারের কাছ থেকে ১০ লক্ষ টাকা দাবী করে। টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে রোকছানাকে শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করে ও পাভেলের মাদকাসক্ত  ছোট ভাই প্লাবন বিভিন্ন সময় তাকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে থাকে। এমন নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে রোকছানার বাবা ওবায়দুর বিয়ের বছরেই ১লক্ষ টাকা পাভেলকে  দেয়। পরে চলতি সালের ১লা মার্চ রোখছানা রান্না করার সময় পাভেল বাড়ি করার অজুহাতে ১০ লক্ষ টাকা দাবী করে সে দিতে না পারায় পাভেল বাশের লাটি দিয়ে বেধড়ক মারধর করে। এ সময় সে চিৎকার করলে  পাভেলের মা ও ভাই বাসা থেকে বের করে  দেয়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় বাবার বাড়ি চলে এসে প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহন করে। এরপর চলতি সালের ২৪ মে পাভেল রোখছানার মোবাইলে কল দিয়ে ভুল স্বীকার করে বাসায় আসতে বললে রোকছানা পাভেলের বাসায় গেলে  ১০ লক্ষ টাকা আবারও চায়। তখন সে দিতে অস্বীকার করলে  পাভেল, তার মা ও ভাই  আবারো মারধর কে বের করে দেয়। পরে স্থানীয়দের সহযোগীতায় রোখছানা ভর্তি হয়ে চিকিৎসা গ্রহন করে। এ বিষয়ে রোখছানার মা শান্তি বেগম পাভেল সহ তার পরিবারের দোষী ব্যাক্তিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য গাইবান্ধা সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। পাভেল কিছুদিন জেল খেটে জামিনে বের হয়ে মামলা তুলে নেয়ার হুমকি প্রদর্শন করছে রোকছানার অভিভাবককে। বর্তমানে নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে রোকছানা ও তার

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি