1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০২:৩৪ অপরাহ্ন

নোহরদীতে প্রতিবন্ধীদের জমি দখলের চেষ্টা

মো: খায়রুল ইসলাম
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২১
  • ৩০৯ বার দেখা হয়েছে

নরসিংদী প্রতিনিধিঃ নরসিংদীর মনোহরদীতে জোড়পূর্বক প্রতিবন্ধী দুই ব্যক্তির জমি দখল চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মনোহরদী খালের ঘাট বাজারের আনিকা ফার্নিচারের মালিক মো. মোখলেছুর রহমান তার ভাই মিজানুর রহমান এবং আল আমিনের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করা হয়েছে। সম্প্রতি মনোহরদী পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের অর্জুনচর চরপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় বাধা দিতে গিয়ে মোছা. হালিমা বেগম নামে এক নারী আহত হয়েছেন। তাকে মনোহরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় হালিমা বেগম বাদী হয়ে মনোহরদী থানায় অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, অর্জুনচর চরপাড়া গ্রামের দৃষ্টি প্রতিবন্ধী আব্দুল বাকির তার ভাতিজা বাক প্রতিবন্ধী মুরশিদ আলমের সঙ্গে প্রতিবেশী মোখলেছুর রহমান ও তার ভাইদের জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলছিল। ২০১৪ সালে স্থানীয় সালিশের মাধ্যমে তাদের জমি-জমার বিরোধ নিস্পত্তি করা হয়। ২০১৬ সালে সালিশ অমান্য করে নরসিংদীর আদালতে মামলা দায়ের করেন মোখলেছ ও তার ভাই। এ নিয়ে আরো বেশ কয়েকবার স্থানীয়ভাবে সালিশ ডাকা হলে প্রতিবারই মোখলেছ সালিশের সিদ্ধান্ত অমান্য করেন। পরবর্তীতে তারা থানা পুলিশ দিয়ে হয়রানীর চেষ্টা করে সেখানেও ব্যর্থ হন। এসবের জের ধরে গত শনিবার সকাল ১০টার দিকে মোখলেছ ও মিজানের নেতৃত্বে ৪০-৫০ জনের একটি দল দেশীয় অস্ত্র নিয়ে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী আব্দুল বারিক এবং বাক প্রতিবন্ধী মুরশিদের তিন শতাংশ জমি দখল করার চেষ্টা করেন। অস্ত্রধারীরা ওই জমির বিভিন্ন গাছ পালা কেটে ফেলে। এসময় প্রতিবন্ধী মুরশিদের মা হালিমা বেগম বাঁধা দিতে গেলে তার উপর হামলা করে অস্ত্রধারীরা । পরে ৯৯৯ ফোন দিলে মনোহরদী থানা থেকে পুলিশ আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। স্বজনরা হালিমাকে উদ্ধার করে মনোহরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দিয়েছেন। ঐদিনই হালিমা বাদী হয়ে মনোহরদী থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ওই গ্রামের মো. জালাল উদ্দিন বলেন, ছয়মাস আগে মোখলেছ ও তার ভাই মোটা অঙ্কের অর্থ খরচ করে দলবল নিয়ে আমার চার শতাংশ জমি জোরপূর্বক দখল করে দেওয়াল নির্মাণ করেন।

এ বিষয়ে মো. মোখলেছুর রহমান বলেন, তাদের আভিযোগ মিথ্যা। আমার কেনা জমি দখল করতে গেলে তারা বাঁধা দিচ্ছেন। এমনকি তারা আমাকে মারধরও করেছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি