1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:৪৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আয়কর আদায় না করতে নির্দেশ দুর্গাপূজায় ৩ কোটি টাকা অনুদান দিলেন প্রধানমন্ত্রী ফের ভ্যাকসিন রপ্তানি শুরু করতে যাচ্ছে ভারত করোনায় আরও ২৬ মৃত্যু, শনাক্ত ১,৫৫৫ শেখ হানিসার নেতৃত্বে কর্মমুখী শিক্ষাব্যাবস্থা বিপ্লব সৃষ্টি হবে সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলব অপ্রত্যাশিত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ডিএমপির সহকারী পুলিশ কমিশনার পদমর্যাদার ৩ জনকে বদলি বিদেশে বসে রাষ্ট্রবিরোধী ষড়যন্ত্রের ফোনআলাপ ফাঁস, নেপথ্যর কারিগর কনক সারোয়ার বাংলাদেশে আরও বিনিয়োগে আগ্রহী সৌদি আরব নগদ থেকে ৩ কোটি ৩২ লাখ টাকা পেল ডাক বিভাগ ‘সরকারকে বহু আগেই ধন্যবাদ দেয়া প্রয়োজন ছিল বিএনপির’ বিএনপির আন্দোলনের বর্তমান প্রয়াসও নিষ্ফল হবে : কাদের এক মাসের মধ্যে ডেঙ্গুর প্রকোপ কমে আসবে : স্থানীয় সরকারমন্ত্রী ভারতে করোনায় মৃত্যু ও সংক্রমণ কমেছে রাজধানীতে মাদক বিক্রি ও সেবনের অভিযোগে গ্রেফতার ৫০

প্রকল্পের অফিস সাজানোর ব্যয় ১ কোটি ৭৫ লাখ টাকা

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট : শনিবার, ২২ মে, ২০২১
  • ৭৫ বার দেখা হয়েছে

একটি প্রকল্পের কার্যালয় সাজসজ্জার জন্য ১ কোটি ৭৫ লাখ টাকা ব্যয়ের প্রস্তাব করা হয়েছে। এছাড়া ১২ কোটি টাকা ব্যয়ে একটি চাইল্ড কেয়ার ফ্যাসিলিটিজ নির্মাণেরও প্রস্তাব করা হয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে পরিকল্পনা কমিশন।
ওই প্রকল্পের নাম ‘হায়ার এডুকেশন এক্সিলারেশন অ্যান্ড ট্রান্সফরমেশন (হিট)’। বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি) প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে।

ঈদের আগেই পরিকল্পনা কমিশনের আর্থ-সামাজিক ও অবকাঠামো বিভাগ প্রকল্পের ওপর প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটির সভা হয়। সঠিকভাবে প্রকল্পের ফিজিবিলিটি স্টাডিও করা হয়নি বলে উল্লেখ করে পরিকল্পনা কমিশন।

বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের (ইউজিসি) সচিব ড. ফেরদৌস জামান  বলেন, বুধবার পিইসি সভা হয়েছে। ঈদের আগে শেষ কর্ম দিবসে সভা হওয়ার কারণে পূর্ণাঙ্গ আলোচনা হয়নি। চলতি মাসে পুনরায় পিইসি সভা হবে।

প্রকল্প কার্যালয়ের সাজসজ্জা ব্যয়ই ১ কোটি ৭৫ লাখ টাকা ধরার প্রসঙ্গে ইউজিসি সচিব বলেন, প্রকল্পটি নানা সংস্থা বাস্তবায়ন করবে। সামনে পিইসি সভা ডাকা হয়েছে। সভায় সব কিছু বিস্তারিত আলোচনা হবে। এখনো কিছু চূড়ান্ত হয়নি।

প্রকল্প নিয়ে পরিকল্পনা কমিশনের শিক্ষা উইং মতামত তুলে ধরে জানায়, ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১ তারিখে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় নতুন প্রকল্প গ্রহণের ক্ষেত্রে প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসন হলো ‘বিস্তারিত স্টাডি না করে এবং যথাযথভাবে সম্ভাব্যতা যাচাই না করে কোনো প্রকল্প গ্রহণ করা যাবে না’ এবং ‘সরকারি খাতে উন্নয়ন প্রকল্প প্রণয়ন, প্রক্রিয়াকরণ, অনুমোদন ও সংশোধন পদ্ধতি-২০১৬’ পরিপত্র অনুযায়ী নতুন প্রকল্প গ্রহণে সম্ভাব্যতা যাচাই বাধ্যতামূলক থাকলেও এ প্রকল্প গ্রহণে পরিকল্পনা কমিশনের অনুমোদিত ছক মোতাবেক সম্ভাব্যতা যাচাই করা ও সে আলোকে ডিপিপি গঠন করা হয়নি। তাই বৈদেশিক ঋণ সহায়তায় এ ধরণের প্রকল্প গ্রহণের যৌক্তিকতা সম্পর্কে মন্ত্রণালয়ের বক্তব্য শোনা যেতে পারে বলে জানায় কমিশন।

প্রকল্পে ৯১ জন জনবলের প্রস্তাব করা হলেও এতে সুস্পষ্ট দায়িত্ব ও কর্তব্য উল্লেখ করা হয়নি। এত বিপুল সংখ্যক জনবলের আদৌ প্রয়োজনীয়তা আছে কি না তা সুষ্পষ্ট নয়। এছাড়া অর্থ বিভাগের নির্ধারিত কমিটির অনুমোদিত জনবল কাঠামো সংযুক্ত করা হয়নি। এছাড়া জনবলের রূপরেখা সম্পর্কিত তথ্য দেওয়া হলেও তা অস্পষ্ট নয়। প্রকল্পের অনুমোদিত জনবল কাঠামো প্রতিবেদন ও জনবলের সুস্পষ্ট সংখ্যা ও হিসাব সম্পর্কিত তথ্য পিইসি সভায় উপস্থাপন করা যেতে পারে।

ক্রয় পরকিল্পনায় অনেক আইটেমের সংখ্যা নেই। তাহলে ব্যয় কিসের ভিত্তিতে নির্ধারণ করা হলো তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে কমিশন।

ইউজিসি চলতি সময় থেকে ডিসেম্বর ২০২৬ মেয়াদে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে। প্রকল্পের মোট প্রস্তাবিত ব্যয় ধরা হয়েছে ৪ হাজার ২২২ কোটি টাকা। প্রকল্পের আওতায় ১ হাজার ৬৪২ কোটি টাকা ঋণ দেবে বিশ্ব ব্যাংক।

বাংলাদেশের সব সরকারি ও ইউজিসির অনুমোদিত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এবং এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব ওমেন্স( চট্টগ্রাম) প্রকল্প এলাকা হিসেবে ধরা হয়েছে।

বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের একটি বড় চ্যালেঞ্জ হলো, কম শিক্ষিতদের চাকরির সুযোগ সৃষ্টি। প্রায় ৩৯ শতাংশ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও ৪৬ শতাংশ মহাবিদ্যালয় থেকে ১-২ বছরে স্মাতক উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা চাকরির সুযোগ পাচ্ছে না। দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলে নারীদের সম্ভাবনার একটি বিরাট সুযোগ রয়ে গেছে। এছাড়া বিশ্ব কোভিড -১৯ মহামারি পরিস্থিতির কারণে দক্ষিণ এশিয়ার শিক্ষা ক্ষেত্রে যে অবর্ণনীয় ক্ষতি হয়েছে তা অর্থনৈতিক উন্নয়নের চ্যালেঞ্জকে বাড়িয়ে দিয়েছে। এ লক্ষ্যে উচ্চ শিক্ষিত শিক্ষার্থীদের চাকরির সুযোগ সৃষ্টিসহ নারী শিক্ষার্থীদের হার বৃদ্ধি করার লক্ষ্য নিয়ে প্রকল্পটির পরিকল্পনা করা হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি