1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৪:৫৩ পূর্বাহ্ন

প্রাকৃতিক গ্যাস আসছে গোপালগঞ্জের ভাগ্যের উন্নয়ন হচ্ছে

রিপোর্টার
  • আপডেট : রবিবার, ৫ মে, ২০২৪
  • ১১০ বার দেখা হয়েছে

গোলাম রব্বানী: গোপালগঞ্জে প্রাকৃতিক গ্যাস আসছে। পায়রা বন্দরের গভীর সমুদ্র থেকে অর্থাৎ কুয়াকাটা থেকে বরগুনা, ঝালকাঠি, বরিশাল, গোপালগঞ্জ বাগেরহাট হয়ে খুলনায় পর্যন্ত যাবে এই গ্যাস পাইপলাইন। তবে এ গ্যাস কেবলমাত্র শিল্পকারখানায় ব্যবহৃত হবে। পরিবার ভিত্তিক এই গ্যাস পাওয়া যাবেনা। তবে এই গ্যাস লাইনের গ্যাস দিয়ে গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ার রাধাগঞ্জ প্রস্তাবিত ২০০একর জমির উপরে নির্মিত ইকোনোমিক জোনে শিল্পকারখানা চালু করা হবে। এছাড়া জেলার অন্যান্য স্থানে গড়ে ওঠা কলকারখানা এই গ্যাস দিয়ে তাদের চাহিদা মাফিক গ্যাস ব্যবহার করে স্বল্পমূল্যে পন্য উৎপাদন করতে পারবে। সেই সাথে এই অঞ্চলের মানুষের বেকারত্ব দূর হবে। অর্থেনৈতিক সমৃদ্ধি ঘটবে। এই অঞ্চলের মানুষের আর্থ সামাজিক উন্নয়ন ঘটবে বলে জেলা প্রশাসক কাজী মাহবুবুল আলম প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন। এ বিষয়ে রবিবার (৫ মে) সকাল ১১টায় অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক)মোঃ গোলাম কবির। সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহবুব আলী খান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অ্যাড. মুন্সী আতিয়ার রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জিএম সাহাবউদ্দিন আজম। এছাড়া অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) ফারহানা জাহান উপমা,বিভিন্ন দপ্তরের প্রধান, জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দ, সাংবাদিকবৃন্দ সহ বিভিন্ন শ্রেনী পেশার লোকজন উপস্থিত ছিলেন।
সেন্টার ফর এনভায়রনমেন্টাল এন্ড জিওগ্রাফিক ইনফরমেশন সার্ভিস ওজেলা প্রশাসক এই মতবিনিময় সভা আয়োজন করে।সংগঠনের পরিচালক মোক্তারুজ্জামান, পরিবেশ বিশেষজ্ঞ আবু সাঈদ মোঃ ফয়সাল, ম্যাকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার ইয়ার উদ্দিন মোঃ আওরঙ্গজেব প্রমূখ প্রকল্প সম্পর্কে অবহিত করেন।
গোপালগঞ্জের শিল্প কলকারখানায় গ্যাস পাচ্ছে এ খবরে গোপালগঞ্জের কলকারখানার মালিকরাই নয়, সর্বস্তরের মানুষই খুশি। গোপালগঞ্জ শিল্প ও বনিক সমিতির সহসভাপতি মোশারেফ হোসেন শেখ, টুঙ্গিপাড়া পৌরসভার মেয়র শেখ তোজাম্মেল হক টুটুল, কোটালীপাড়া পৌর মেয়র মতিয়ার রহমান হাজরা বলেন, গ্যাস পাইপলাইনের কাজ শেষ হলে এবং আমারা গোপালগঞ্জে শিল্প কারখানার জন্য গ্যাস পেলে সেই গ্যাস ব্যবহার করে দেশি-বিদেশী শিল্প মালিকরা কারখানা চালু করলে এই অঞ্চলের মানুষের কাজের সুযোগ হবে। বেকারত্ব কমবে এবং এলাকার মানুষের আর্থ সামাজিক উন্নয়ন ঘটবে।
আয়োজক সংগঠন সূত্রে জানাগেছে, গোপালগঞ্জ অতিক্রমকারী পাইপ লাইনের দৈর্ঘ্য ৩১.২৫ কিঃ মিঃ। সরকার যে সব এলাকা থেকে এই পাইপ লাইন নিবে সেসব এলাকাকা থেকে জমি অধিগ্রহন ও অধিযাচন এর মোট যথাক্রমে ৬২.৬৩৪ একর এবং ১১৭.৪৮৬ একর জমি করা হবে। পাইপ লাইনটি গোপালগঞ্জ জেলার অন্তর্গত তিন উপজেলা দিয়ে অতিক্রম করবে, উপজেলা গুলো হলো- গোপালগঞ্জ সদর, কোটালীপাড়া এবং টুঙ্গীপাড়া। যে সকল ইউনিয়ন ও মৌজা দিয়ে পাইপ লাইন অতিক্রম করবে সেসব স্থান হলোঃ গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার পৌর এলাকার ১১ ওয়ার্ড এর খাটরা মৌজা, ওয়ার্ড ১৪ এর বোড়াশী ও তেঘরিয়া মৌজা, ওয়ার্ড ১৫ এর গোবরা মৌজা, গোবরা ইউনিয়নের পোদ্দারের চর মৌজা এবং রঘুনাথপুর ইউনিয়নের সিলনা ও দীঘারকুল মৌজা।
কোটালীপাড়া উপজেলার কান্দি ইউনিয়নের গজালিয়া, হিজলবাড়ি ও তালপুকুরিয়া মৌজা। টুঙ্গীপাড়া উপজেলার পাটগাতি ইউনিয়নের বালাডাঙ্গা, বড় সিঙ্গিরপাড়া ও টুঙ্গিপাড়া মৌজা, বর্নি ইউনিয়নের বর্নি মৌজা, ডুমুরিয়া ইউনিয়নের ভৈরব নগর ও সালুখা মৌজা এবং গোপালপুর ইউনিয়নের গুয়াধানা মৌজা। এসব মৌজা থেকে

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি