1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
  3. [email protected] : lalashimul :
সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৪:২৭ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
করোনার টিকা নিলেন নরেন্দ্র মোদী করোনাভাইরাসে ২৪ ঘণ্টায় আরও ৮ জনের মৃত্যু, নতুন ৫৮৫ রোগী শনাক্ত ‘ভারতও বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুর্বণজয়ন্তী উদযাপন করবে’ সোনাইমুড়ীর জাহানারা হাসপাতালের বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ এমন কোন ম্যাজিক দিয়ে এই করোনা মহামামরি মুক্ত করেছেন, জাতি আপনার কাছে জানতে চায় বীমা হলো সেবা, গ্রাহকের স্বার্থকে অগ্রাধিকার দিতে হবে : প্রধানমন্ত্রী ভারতে ১৮ ঘণ্টায় ২৫ কি.মি. রাস্তা তৈরি করে বিশ্বরেকর্ড! যারা পুলিশের সমালোচনা করে তাদের মুখে ছাই পড়ুক : আইজিপি প্রেসক্লাবে দু’একজন পুলিশ হয়তো ঢুকেছিল: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মাদারীপুরের রাজৈরে রুবেল হত্যার বিচার দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

প্রেমিক যে ৮ কাজ করলে তাকে ছাড়া উচিত নয়

রিপোর্টার
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ১৫ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ১১১ বার দেখা হয়েছে

লাইফস্টাইল ডেস্ক : যুগের পরিবর্তনে ভালোবাসারও পরিবর্তন হয়েছে। কেউ মন থেকে ভালোবাসেন। আবার এমন অনেক মানুষ আছেন, যারা প্রেমটা খুব সহজভাবে নেন। তারা ভাবেন কয়েকমাস আনন্দ, ফূর্তি, ঘোরা, খাওয়া…তারপর বাবা-মায়ের পছন্দের পাত্রীকে বিয়ে। এজন্য সম্পর্কের শেষে গুছিয়ে কয়েকটি মিথ্যা বলে সম্পর্কচ্ছেদ করেন।
এখনও অনেক মেয়ে আছেন, যারা না বুঝেই ভালোবেসে ফেলেন। মন থেকে জড়িয়ে যান সম্পর্কে। কিন্তু পরবর্তীতে যখন ধাক্কা লাগে তখন সামলে নিতে বেশ বেগ পেতে হয়। সবকিছু সামলে নতুন করে সম্পর্ক তৈরি তার জন্য কষ্টকর হয়ে দাঁড়ায়।
তবে সবার ক্ষেত্রে যে এমনটা হয় তা নয়। তাই প্রথমেই পছন্দের মানুষের ব্যাপারে খারাপ মনোভাব নেয়া উচিত নয়। বরং সঙ্গীকে চিনুন। মানুষের উপর বিশ্বাস জন্মানোর সুযোগ করে দিন। যদি আপনার প্রেমিকের মধ্যে এই লক্ষণগুলো দেখেন তাহলে বুঝবেন তিনি সত্যিই আপনার যত্ন নেন।তার সঙ্গে বিয়ের ব্যাপারে ভাবতে পারেন। চলুন সেসব লক্ষণ সম্পর্কে জেনে নিই-
আপনার মন বুঝে চলেন-
কেন আপনি রেগে বা ঠিক কেমন খাবার আপনি পছন্দ করেন আপনার কোন রং পছন্দ এসবের খেয়াল রাখেন তাহলে বুঝবেন সেই ছেলে সত্যিই ভালো। কোনো একদিন কোনো এক কারণে আপনার চোখে খুশির ঝলক দেখেছিল, পরবর্তীতে ঠিক সেই ইচ্ছের কথা মাথায় রেখে আপনার শখ পূরণ করেছে, তাহলে বুঝবেন পছন্দে কোনো খামতি নেই।
নিজের সম্বন্ধে সব সত্যি বলেন : প্রথম থেকেই নিজের জীবন সম্বন্ধে একটাও কথা লুকোননি। আপনার আগে তিনি কজনের সঙ্গে প্রেম করেছেন, কিংবা তার পরিবারের মানুষরা কেমন, পরিবারের আর্থিক সঙ্গতি, বাড়ির পরিবেশ এসব নিয়ে কোনো লুকোছাপা রাখেননি। বরং কীভাবে নিজে কষ্ট করে নিজের পড়াশোনা করেছেন সেকথাও বলেন। মনের দিক থেকে পরিষ্কার।
আপনার অনেক ভালো অভিজ্ঞতার সাক্ষী : একসঙ্গে কোথাও ঘুরতে যাওয়া থেকে শুরু করে আপনার জীবনে সবচেয়ে ভালো মুহূর্ত অভিজ্ঞতা তার সঙ্গেই। সেই সঙ্গে আপনাকে যেকোনো কিছুতেই খুব স্পেশ্যাল ফিল করান। আপনাদের দুজনের একসঙ্গে সময় কাটিয়ে খুব ভালো লাগে, তাহলে সত্যিই আপনারা ভালো জুটি।
আপনি ভুল করলেও তিনি সেসব পাত্তা দেন না : তার কাছে আপনিই সেরা। আপনার হাজার ভুল, মাথা গরম, ঝগড়া এসবেরও পরও তিনি কিছুতেই রাগ করেন না। বরং আপনাকে ঠাণ্ডা মাথায় বোঝান। সবসময় আপনার পাশে থাকেন। আপনাকে সব ব্যাপারে উৎসাহ দেন। তার যাবতীয় কিছু তিনি খুঁজে পান আপনার মধ্যেই।
আপনার সঙ্গেই ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা করছেন : আস্তে আস্তে ছেলেটি ভবিষ্যতের পরিকল্পনা করছে। নিজের চাকরি, কেরিয়ার সেভাবে গোছাচ্ছে। আর সঙ্গে কিন্তু আপনাকেও অবহেলা করছে এমনটা নয়। বরং আপনি কি চান, আপনার চাকরি, পড়াশোনা, ভবিষ্যতের উচ্ছে সবকিছু নিয়েই তিনি ভাবেন।মন ছেলেকে ভুল বুঝিয়ে দূরে সরিয়ে দেবেন না। বরং ভবিষ্যতের পরিকল্পনাটা সেরেই ফেলুন তার সঙ্গে।
আপনার সঙ্গে থাকতে পেরে গর্বিত : সবসময় আপনাকে নিয়ে গর্ব অনুভব করেন আপনার প্রেমিক। আপনার প্রতিটি কাজের প্রশংসা করেন। আপনি কোনও উদ্যোগ নিলে সবসময় পাশে থাকেন। নিজের বন্ধুদের সঙ্গে খুব গর্ব করেই আপনার পরিচয় করিয়ে দেয়। এর অর্থ তিনি সত্যিই আপনাকে জীবনে পেয়ে খুশি। সেই সঙ্গে তিনি এটাও মনে করেন তার জীবনে যা কিছু ভালো সব হয়েছে আপনার জন্যেই।
জীবনে সত্যি ভালোবাসার অর্থ বুঝিয়ে দেন : ভালোবাসা তো অনেক রকম হয়। সব সময় উপহারে তার বহিঃপ্রকাশ হয় না। কিংবা সারাদিনে পাঁচবার ফোন করলেই তা হয় না। ভালোবাসা শব্দটা অনেক বড়। আর তা অনেক কিছু দিয়েই বোঝানো যায়। এক্ষেত্রে জীবনের ছোট ছোট মুহূর্তগুলোই সবচেয়ে দামি। নিজেদের মুহূর্তকে নিজেদের মতো করে উদযাপন করুন।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি