1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
  3. [email protected] : lalashimul :
সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৬:২১ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
মাদারীপুর পৌর নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থী খালিদ হোসেন ইয়াদ বিজয়ী রায়পুর পৌরসভা নির্বাচনে গিয়াস উদ্দিন রুবেল ভাট মেয়র নির্বাচিত হয়েছে হবিগঞ্জে আওয়ামী লীগ প্রার্থী আতাউর রহমান সেলিম মেয়র নির্বাচিত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড . হারুনের দুই মেয়াদ পূর্তিতে সংবাদ সম্মেলন মাদারীপুরে আগুনে পুড়ে শিশুর মৃত্যু লক্ষ্মীপুরে বীমা দিবস উপলক্ষে মানববন্ধন ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়নের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখার আহ্বান ভিসি হারুনের সোনাইমুড়ীর জাহানারা হাসপাতালের বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ করোনার টিকা নিলেন নরেন্দ্র মোদী করোনাভাইরাসে ২৪ ঘণ্টায় আরও ৮ জনের মৃত্যু, নতুন ৫৮৫ রোগী শনাক্ত

বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনিস্টিটিউটে মহান আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত

এম.এস.এ বাবু (জয়দেবপুর থানা প্রতিনিধি):
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৩৪২ বার দেখা হয়েছে

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে গাজীপুরে অবস্থিত বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনিস্টিটিউট এবং বি.আর.আর.আই উচ্চ বিদ্যালয়ে ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনে যে মহান ব্যাক্তিরা নিজের জীবন উংসর্গ করেছেন, তাদের স্বরণে পালিত হলো আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। সকাল ৬.০০ঘটিকায় বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনিস্টিটিউট মহাপরিচালক ড. মো: শাহজাহান কবির মহাদয়ের নেতৃত্বে দোয়া ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন, উক্ত প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন বিভাগের প্রধানগণ, আরো উপস্থিত ছিলেন উক্ত প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ। উপস্থিত ছিলেন বি.আর.আর.আই উচ্চবিদ্যালয় ও ব্রি-প্রগতি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সম্মানিত শিক্ষকগণ। আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে বক্তৃতা প্রধান করেন প্রধান অতিথি মহাপরিচালক ড. মো: শাজাহান কবির মহোদয়, তিনি বলেন বাংলা ভাষা আন্দোলন ছিল ১৯৪৭ ইং থেকে ১৯৫৬ইং পর্যন্ত তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান (বর্তমান বাংলাদেশ) সংগঠিত হয় একটি সংস্কৃতিক রাজনৈতিক গণআন্দোলন। বাংলা ভাষায় কথা বলার মৌলিক অধিকার রক্ষাকরণে বাংলা ভাষাকে ঘিরে সৃষ্টি এই আন্দোলনের মাধ্যমে তদানীন্তন পাকিস্তান অধিরাজ্যের অন্যতম রাষ্ট্র ভাষা হিসেবে বাংলা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে গণদাবীর বহিঃপ্রকাশ ঘটে। ১৯৫২ সালে ২১শে ফেব্রুয়ারিতে চূড়ান্ত রূপ ধারণ করলেও এর বিজ রোপিত হয়ে বহু আগে। অন্য দিকে এর প্রতিক্রিয়া এবং ফলাফল ছিল সুদূরপ্রসারি। মহাপরিচালক ড. মোঃ শাজাহান কবির মহোদয় বলেন বর্তমান সরকার প্রধান মাননীয় প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ভাষা শহীদ পরিবার ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের অর্থনৈতিক সুযোগ সুবিধা চিকিৎসা ব্যবস্থা উন্নতিকরণে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছন। তিনি বলেন বাংলা ভাষায় আমরা যে ভাবে মনের মাধুরী মিশিয়ে কথা বলতে পারি তা অন্য কোন ভাষায় বলতে পারবে না কেউ। এজন্য আমাদের বাংলা ভাষার উপর গুরুত্ব আরোপ করতে হবে।
মহাপরিচালক ড. মোঃ শাজাহান কবির মহোদয় আরোও বলেন বাংলা ভাষা আমাদের মায়ের ভাষা কতই না মধুর, যে ভাষায় আমরা খুঁজে পাই মায়ের স্নেহ মাখা আদর, বাবার অকৃত্রিম ভালবাসা ভাই-বোনের কুনশুটি’র ভালবাসা, মহান কবিদের গ্রাম বাংলা মেঠো পথ আর লাল সবুজের দরদ মাখা কবিতা। যে ভাষার জন্য বিশ্বের একমাত্র দেশ বাংলাদেশ, বাংলা ভাষার জন্য নিজেদের জীবন মায়ের ভাষার জন্য উৎসর্গ করেছেন এই দেশের দামাল ছেলেরা, যা সারা বিশ্বে এক উজ্জল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় আমরা মাহান একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করতে সক্ষম হয়েছি বিশ্বদরবারে।
বক্তব্য রাখেন ড. মোঃ আবু বক্বর সিদ্দিক পরিচালক, (প্রশাসন এবং সাঃ পরিচর্যা) তিনি ভাষা দিবস ও আন্তর্জাতিক ও মাতৃভাষার বিভিন্ন আবেগঘন বিবৃতি প্রদান করতে গিয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে যান। ড. মোঃ আবু বক্বর সিদ্দিক মহোদয় ভারাক্রান্ত মনে বলেন আমাদের মায়ের ভাষাকে যেন সঠিক চর্চা ও সুন্দর ভাবে আমাদের পরবর্তী প্রজন্মকে জানাতে বুঝাতে এবং বাংলা ভাষা’র পূর্ব ইতিহাসের মর্ম তুরে ধরতে পারি, সে ব্যবস্থা আমাদেরকেই নিতে হবে। এর পর অন্যান্য উধ্বর্তন কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ বক্তব্য রাখেন। পরিশেষে ভাষা শহীদ এবং বীর শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদেরসহ দেশ ও জাতির জন্য বিশেষ মুনাজাত করা হয়। এরপর বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনিস্টিটিউট এবং বি.আর.আ.আই উচ্চ বিদ্যালয়ে সম্মিলিত একটি দল ড. মোঃ শাজাহন কবির মহোদয় এর নেতৃত্বে সরকারী স্বাস্থ্য বিধি মেনে সুসজ্জিত একটি র‌্যালি বের করা হয়। ‘আমার ভাইয়ের রক্তের রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারি আমিকি বুলিতে পারি’ গানে গানে র‌্যালিটি বি.আর.আর আই উচ্চ বিদ্যালয়ে’র শহীদ মিনারের প্রাঙ্গনে এসে শেষ হয়। এরপর মহাপরিচালক ড. মোঃ শাজাহান কবির মহোদয়সহ পরিচালকবৃন্দ শ্রদ্ধা নিবেদন ও পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন, বি.আর.আর.আই উচ্চ বিদ্যালয়ে সহকারী প্রধান শিক্ষক জীবন চন্দ্র দাস ও অন্যান্য সম্মানিত শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সম্মিলিত ভাবে শ্রদ্ধা নিবেদন ও পুষ্পার্ঘ অর্পণ করেন বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনিস্টিটিউট বিভিন্ন অঙ্গ -সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি