1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
সোমবার, ২৪ জানুয়ারী ২০২২, ০৩:৩৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের জায়গা দখলে নিচ্ছে ওমিক্রন করোনায় আরও ১৪ মৃত্যু, শনাক্ত ১০,৯০৬ তামিমের সঙ্গে সামনাসামনি কথা বলতে চাই: সুজন সূচকের সঙ্গে কমেছে লেনদেন ‘অবৈধ দখলদারদের সিটি করপোরেশন নোটিশ দেবে না’ যতটা ভয় পাচ্ছি, ততটা ভয়াবহ কিছু হবে না: অর্থমন্ত্রী করোনার টিকাদান সোয়া ১৫ কোটি ছাড়িয়েছে রক্তের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীনতাকে রক্ষা করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে ফের আলোচনায় বসছেন শিক্ষার্থীরা ইসি নিয়োগ বিল সংসদে উত্থাপন ভারতে ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ৩ লাখ ৩৩ হাজার, মৃত্যু ৫২৫ সংসদের মুলতবি বৈঠক শুরু ১০১ টাকা কাবিনে বিয়ে হলো রাজ-পরীর রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৫৪ হোল্ডারের ক্যারিয়ারসেরা বোলিংয়ে ক্যারিবীয়দের দাপুটে জয়

বালূ ব্যবসায়ী মিন্টুকে স্থানীয় সন্ত্রাসীদের হত্যার হুমকি

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেট : বুধবার, ২১ এপ্রিল, ২০২১
  • ৮৩ বার দেখা হয়েছে

জাতীয় অর্থনীতির বিশেষ প্রতিনিধি ঘটনাস্থলে গিয়ে মিন্টু সহ আশেপাশের লোকজনের কাছে জানতে পারে যে, সজীব সহ তার লোকজন গত ১৪-২-২০২১ তারিখ রবিবার কেরানীগঞ্জ থানাধীন ঝাউচর আরশি নগর এলাকায় মোহাম্মদ আবদুর রব নামের এক ব্যক্তির জমি দখল করতে গেলে আব্দুর রব বাধা দেয়। এক পর্যায়ে আব্দুর রবকে সজিবের লোকজন মারার হুমকি দিয়ে তাড়িয়ে দেয়। পরে আব্দুর রব কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন এবং তাৎক্ষণিক পুলিশ এসে কাজ বন্ধ করে দেয়। অভিযোগের ভিত্তিতে আটিবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ঘটনার সত্যতা যাচাইয়ের জন্য পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ হায়দার একটি পুলিশের গাড়ির বহর নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছান। ঠিক ঐ সময় বালু ব্যবসায়ী মিন্টু জমি দখলের কথা পুলিশকে জানান। তিনি আরো বলেন জমির দখলের সময় আমি বাধা দেয়ার চেষ্টা করি। কারণ হিসেবে তিনি জানান, কয়েক বছর আগে আমি এখানে বালি ভরাট করি বালুর ভরাটের টাকা দাবি করলে সেখানেও সজীবের লোকজন হুমকি-ধামকি দেয়। তারপর আটিবাজার ফাঁড়ির ইনচার্জ ঘটনাস্থলে এসে সবাইকে কাজ বন্ধ রাখার আহবান জানিয়ে চলে যান। ঠিক তারপর দিন মিন্টুকে মুঠোফোনে সজিবের লোকজন হত্যার হুমকি দেন।
এ ব্যাপারে মিন্টু কেরানীগঞ্জ মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। ডায়েরি নাম্বার ৮৬০। ডাইরিতে সজীব বেপারী পিতার নাম মরহুম ইব্রাহিম বেপারী, মতিন পিতার নাম মরহুম ফজল, মোবারক পিতার নাম মরহুম আলী হোসেন, রাজিব পিতা লাল মিয়া নাম উল্লেখ করে কেরানীগঞ্জ মডেল থানার মিন্টু একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এস আই মহেসিন তদন্ত করার জন্য ঘটনাস্থলে যান। সেখানেও সজিব সহ তার লোকজন আবারো মিন্টুকে হত্যার হুমকি দেয় বলে অভিযোগ করেন।
এ বিষয়ে মিন্টু তাৎক্ষণিকভাবে আরো একটি সাধারণ ডায়েরি করেন। এ ব্যাপারে সজীবের সাথে আমাদের প্রতিনিধি মুঠোফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টায় ব্যর্থ হয়। উক্ত ঘটনায় এখন পর্যন্ত মিন্টু সহ মিন্টুর পরিবার চরম আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছেন। মিন্টু এ ঘটনার সঠিক তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চান বলে আমাদের প্রতিনিধিকে জানান।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি