1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:৩৮ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
সরকার অবৈধ হলে দাবি করছেন কেন?, ফখরুলকে কাদেরের প্রশ্ন কারও কাছ থেকে যেন পিছিয়ে না থাকি ৬ শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে হত্যা: ১৩ জনের মৃত্যুদণ্ড রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেফতার ৫৪ সালাহর জোড়া গোলে লিভারপুলের হ্যাটট্রিক ‘হালি’ এবার ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নারী আহত, চালক আটক সংসার ভাঙছে তথাগত-দেবলীনার! আমিরাতের টি২০ লিগে দল কিনলেন রোনালদোদের মালিক বিশ্বে করোনায় মৃত্যু-শনাক্ত আরও বাড়লো করোনা বাড়লে আবারও বন্ধ হয়ে যাবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান: প্রধানমন্ত্রী যেসব খাতে ভারত-পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ জাতির আস্থার প্রতীকে পরিণত হয়েছে সেনাবাহিনী: স্পিকার রিটার্ন জমা বেড়েছে, করদাতা ছাড়াতে পারে ২৫ লাখ এক সেঞ্চুরি আর আরেক হাফ সেঞ্চুরিতে ২৪ ধাপ এগোলেন লিটন আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম কমলে ব্যবস্থা নেবো: অর্থমন্ত্রী

বিএনপি নেতা মীর নাসিরের ছেলে আত্মসমর্পণ করে কারাগারে

রিপোর্টার
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩৪৩ বার দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক :
বিএনপির নেতা মীর মোহাম্মদ নাসির উদ্দিনের ছেলে মীর মোহম্মদ হেলালকে অবৈধ সম্পদ অর্জনের একটি মামলায় কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

মঙ্গলবার ঢাকার ২ নম্বর বিশেষ জজ আদালতের বিচারক এ এম এম রুহুল ইমরানের আদালতে আইনজীবীর মাধ্যমে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে তা নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

সংশ্লিষ্ট আদালতের বেঞ্চ সহকারী (পেশকার) দেওয়ান আশিক জানান, বিচারিক আদালত থেকে তিন বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত মীর হোলালের দণ্ড আপিল বিভাগে বহাল রাখেন। আজ তিনি আত্মসমর্পণ করে জামিনের প্রার্থনা করেছিলেন। যা আদালত নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে ২০০৭ সালের ৬ মার্চ মীর নাসির ও তার ছেলে মীর হেলালের বিরুদ্ধে গুলশান থানায় মামলা দায়ের করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

মামলায় বিচার শেষে একই বছরের ৪ জুলাই ঢাকার ২ নম্বর বিশেষ জজ মীর নাসির উদ্দিনকে ১০ বছরের দণ্ড দেন। একইসঙ্গে ৫০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড, অনাদায়ে দুই বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেন। আর তার ছেলে মীর হেলালকে তিন বছরের কারাদণ্ড এবং ১ লাখ টাকার অর্থদণ্ড দেন। ওই রায়ের বিরুদ্ধে পিতা ও পুত্র হাইকোর্টে পৃথক আপিল করেন।

২০১০ সালের ১০ আগস্ট হাইকোর্ট মীর নাসিরের এবং একই বছরের ২ আগস্ট মীর হেলালের সাজা বাতিল করে রায় দেন। এরপর হাইকোর্টের ওই রায় বাতিল চেয়ে আপিল আবেদন করে দুদক।

২০১৪ সালের ৪ জুলাই আপিল বিভাগ হাইকোর্টের রায় বাতিল করে হাইকোর্টকে পুনরায় আপিল শুনানির নির্দেশ দেন। পুনরায় আপিল শুনানি শেষে ২০১৯ সালের ১৯ নভেম্বর হাইকোর্ট বিচারিক আদালতের রায় বহাল রেখে রায় দেন। একই সঙ্গে রায় প্রদানকারী বিচারিক আদালতে রায় পৌঁছানোর তিন মাসের মধ্যে আসামিদের আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন।

 

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি