1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
বুধবার, ১০ অগাস্ট ২০২২, ০৫:২০ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
খোলাবাজারে ডলারের দাম রেকর্ড ১১৯ টাকা ঢাকায় ওসির বিপুল সম্পদ: রিটকারীকে দুদকে আবেদন দিতে বললেন হাইকোর্ট বিয়ে না করে সন্তান জন্মদান: কিশোর-কিশোরীর অভিভাবককে তলব ক্যানসার গবেষণায় বাংলাদেশি গবেষকের সাফল্যে নোয়াখালীর ড. মো. জসিম কর ফাঁকি ও অর্থপাচার রোধে ‘কমন রিপোর্টিং স্ট্যান্ডার্ড’ অবলম্বন করুন: টিআইবি সুইস ব্যাংকে জমা অর্থের বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো ব্যক্তির তথ্য চায়নি বাংলাদেশ মার্চেই শেষ হবে সায়েদাবাদে আধুনিক বাস টার্মিনাল নির্মাণ: মেয়র তাপস বাংলাদেশের বিশেষ কোন দলকে সমর্থন করে না যুক্তরাষ্ট্র: রাষ্ট্রদূত সম্রাটের জামিন বাতিলের আদেশ বহাল ক্রিমিয়ার মুক্তির মধ্য দিয়েই ইউক্রেন যুদ্ধ শেষ হবে : জেলেনস্কি

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিতে দ্বিতীয়বার পরীক্ষার সুযোগ দেওয়া উচিত

রিপোর্টার
  • আপডেট : রবিবার, ৯ জানুয়ারী, ২০২২
  • ৯৯ বার দেখা হয়েছে

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় শিক্ষার্থীদের দ্বিতীয়বার পরীক্ষার সুযোগ দেওয়া উচিত বলে মতামত দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী দিপু মনি।

তিনি বলেছেন, এটা একান্ত আমার মতামত। তবে তা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর নিজস্ব সিদ্ধান্তের বিষয়। আমরা আমাদের দিক থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে বসতে চাই। শুধু পুনরায় ভর্তি পরীক্ষা না, বিশ্বের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে যেসব নিয়ম চালু আছে আমরা যদি দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে সেই মানে উন্নীত করতে চাই তবে সে বিষয়েও কিছুটা অগ্রগতি হয়তো হবে।

রোববার (৯ জানুয়ারি) আশুলিয়ায় ড্যাফোডিল আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাবর্তন অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবক সবার স্বাস্থ্য সুরক্ষার অগ্রাধিকার দিয়ে প্রয়োজন হলে অবশ্যই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করা হবে বলে জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের ইচ্ছা আপাতত নেই। আমরা এখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করার বিষয়ে ভাবছি না। যতদিন সম্ভব আমরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখতে চাই।

দিপু মনি বলেন, আজকে আমাদের পরামর্শক কমিটির সভা রয়েছে, সেখানে আমরা সার্বিক ব্যবস্থা নিয়ে আলোচনা করবো। আমরা যেমন একদিকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করতে চাই না, ঠিক তেমনি সবার স্বাস্থ্যের বিষয়ক অগ্রাধিকার দিয়ে যদি বন্ধ করতে হয় তাহলে অবশ্যই আমরা বন্ধ করবো।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, গত দুই বছরে আমাদের অভিজ্ঞতা ছিল মার্চ মাসের দিকে করোনা বাড়ে। কিন্তু এ বছর করোনার সংক্রমণ জানুয়ারিতেই শুরু হয়ে গেছে। আমাদের সবাইকে অনেক বেশি সতর্ক থাকতে হবে। আমরা ভেবেছিলাম সংক্রমণ চলেই গেছে। কারণ, বিশ্ব যখন পর্যুদস্ত ছিল তখন বাংলাদেশের অবস্থা ভালোই ছিল। হয়তো সে কারণে আমাদের এখানে এক প্রকার আত্মবিশ্বাস জন্মে গিয়েছিল যে, আর করোনার সমস্যা নেই। তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বার বার সতর্ক থাকার কথা বলেছেন। আমরা সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবো।

১২ বছরের কম বয়সী শিশুদের করোনা প্রতিরোধী টিকা দেওয়ার বিষয়ে কোনো চিন্তাভাবনা আছে কি না- জানতে চাইলে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এখনো ১২ বছরের কম বয়সীদের টিকা দেওয়ার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। আপাতত তাদের টিকা দেওয়া হবে না।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি