1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:০৬ অপরাহ্ন

ব্যবসায়ী হাসান আলী হত্যা মামলায় পাদুকা ব্যবসায়ী মেন ও বাবুকে হয়রানীমূলকভাবে আসামি করায় সংবাদ সম্মেলন

রানা রহমান
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল, ২০২১
  • ২০৭ বার দেখা হয়েছে
বিশেষ প্রতিনিধি গাইবান্ধা : ব্যবসায়ী হাসান আলী হত্যা মামলায়  পাদুকা ব্যবসায়ী মেন ও বাবুকে হয়রানীমূলকভাবে আসামি হিসেবে অন্তর্ভূক্ত করার প্রতিবাদ এবং প্রতিকার দাবিতে গাইবান্ধায় মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন।
গাইবান্ধায় ব্যবসায়ী হাসান আলী হত্যা মামলায় উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও  হয়রানীমূলকভাবে পাদুকা ব্যবসায়ী শহরের ডেভিড কোম্পানীপাড়ার রুমেন হক ও খলিলুর রহমান বাবুকে আসামি হিসেবে অন্তর্ভূক্ত করার প্রতিবাদ এবং প্রতিকার দাবিতে মঙ্গলবার মানববন্ধন ও সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।
জেলা পাদুকা ব্যবসায়ী ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কর্মচারী এবং পরিবারের সদস্যরা এই সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করে। গাইবান্ধা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন শেষে প্রেসক্লাবের সম্মুখস্থ সড়কে তারা মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করে।
রুমেন হকের স্ত্রী নদী বেগম ও খলিলুর রহমান বাবুর স্ত্রী সোহাগী বেগম সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করেন, রুমেন হক ও খলিলুর রহমান বাবু দীর্ঘদিন ধরে গাইবান্ধা শহরে সুনামের সাথে জুতা-স্যান্ডেলের ব্যবসা করে আসছে। প্রকৃত বিষয় হচ্ছে যে, আফজাল সুজের সাবেক ডিলার হাসান আলী নিহতের ঘটনায় রম্নমেন হক ও খলিলুর রহমান বাবুর কোন সম্পৃক্ততা নেই। উদ্দেশ্যেমূলক, হয়রানী ও ব্যবসায়িক ক্ষতি এবং সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন করতে তাদেরকে সুপরিকল্পিতভাবে মামলার আসামি করা হয়েছে।
আফজাল সুজের সাবেক ডিলার নিহত হাসান আলী ব্যবসা করে আসছিল। কিন’ আফজাল সুজের ডিলারশীপের নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পের চুক্তির মেয়াদ শেষ হওয়ায় আফজাল সুজ কর্তৃপক্ষ খলিলুর রহমান বাবুকে ডিলারশীপ প্রদান করে। এখানে খলিলুর রহমান বাবু ও রুমেন হকের সাথে নিহত হাসান আলী ডিলারশীপের বিষয়ে কোন সম্পৃক্ততাও নেই।
সংবাদ সম্মেলনে আরও উল্লেখ করা হয়, নিহত হাসান আলীকে অপহরণ করে দাদন ব্যবসায়ী মাসুদ রানার বাড়িতে আটকে রেখে তাকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে। গত ১০ এপ্রিল মাসুদ রানার বাড়ি থেকে হাসান আলীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। উল্লেখিত মামলার অভিযোগের পরিপ্রেড়্গিতে এটা সুস্পষ্ট যে, ওই হত্যাকান্ডের সাথে মো. রুমেন হক ও খলিলুর রহমান বাবু কোনক্রমেই জড়িত নয়। তাদেরকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ফাঁসানোর জন্য মামলার আসামি করা হয়েছে।
এব্যাপারে প্রকৃত ঘটনাটি তদন্ত করে জড়িতদের আইনের আওতায় আনার দাবি জানিয়ে তারা প্রধানমন্ত্রী, পুলিশের ডিআইজি, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারসহ উর্দ্ধতন কর্তৃপড়্গের কাছে রুমেন হক ও খলিলুর রহমান বাবুকে এই হত্যা মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়ার জন্য অনুরোধ জানান।
সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধনে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রুমেন হকের মেয়ে সুমনা আকতার, রুমেনের ভাই মো. রাজেন মিয়া, রুবেল হক, সাজেদুল হক সূর্য্য, খলিলুর রহমান বাবুর শ্বশুর দেলোয়ার হোসেন, মেয়ে নির্জনা আকতার, আলমগীর হোসেন, খোকন মিয়া, ইলি আকতার প্রমুখ।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি