1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:২৯ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
মুফতি ইব্রাহীম আটক বিশ্বে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়েছে ফাইজারের আরও ২৫ লাখ টিকা দেশে পৌঁছেছে করোনা টিকার বুস্টার ডোজ নিলেন বাইডেন দ্বিতীয় ডোজ টিকার আওতায় ১ কোটি ৬৫ লাখ মানুষ প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে গণটিকা কার্যক্রম শুরু শেখ হাসিনা তাঁর পিতার মতোই গণমানুষের নেতা : রাষ্ট্রপতি দুই সিটির ১২৯ কেন্দ্রে গণটিকা দেওয়া হবে কাল বাংলাদেশ রেলওয়ের উন্নয়নে অবদান রাখছে ভারত : দোরাইস্বামী স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক পদে রদবদল স্পিকারের সঙ্গে মালদ্বীপের হাইকমিশনারের সৌজন্য সাক্ষাৎ ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন বাস্তবতা : প্রধানমন্ত্রী সাংবিধানিক সংকট সৃষ্টির চেষ্টায় বিএনপি: তাজুল ইসলাম প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে ই-পোস্টার প্রকাশ তিনটি শর্ত না মানায় বাদ দীঘি, বনির নায়িকা শালুক

ভারতের বর্তমান করোনা পরিস্থিতি মোদি সরকারের নিজের তৈরি করা, সমালোচনা ল্যানসেটের

অনলাইন ডেস্ক
  • আপডেট : রবিবার, ৯ মে, ২০২১
  • ৪৪ বার দেখা হয়েছে

মহামারি করেনায় ভারতের বর্তমান ভয়াবহ পরিস্থিতির জন্য দেশটিতে ক্ষমতাসীন কট্টরপন্থী বিজেপি সরকারকে দায়ী করেছে স্বাস্থ্যবিষয়ক বিখ্যাত পত্রিকা ল্যানসেট। ল্যানসেট জানায়, ভারতের বর্তমান করোনা পরিস্থিতি মোদি সরকারের নিজের তৈরি করা। চাইলে এই পরিস্থিতি এড়াতেও পারতো দেশটি। এটাকে ‘ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ’ বলেও মন্তব্য করেছে পত্রিকাটি। ঠিক যেন, ইচ্ছা করেই মানুষকে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিয়েছে মোদি সরকার

ভারতের করোনা পরিস্থিতি সম্পর্কে ল্যানসেট তাদের সম্পাদকীয়তে লিখেছে, ভারতে ভয়ঙ্কর করোনা-পরিস্থিতির মধ্যেও সংক্রমণ ঠেকানোর থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটার থেকে সমালোচনামূলক টুইট সরাতে বেশি আগ্রহ ছিল মোদি সরকারের। আর তাই দেশের এই পরিস্থিতিতে মোদি সরকারের ভূমিকা ও দেশবাসীর প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারের এই মনোভাব ‘ক্ষমার অযোগ্য’।

মোদি সরকারের সরাসারি সমালোচনা করে পত্রিকাটি লিখেছে, বারবার সতর্ক করা সত্ত্বেও সরকার ধর্মীয় উৎসব পালন এবং রাজনৈতিক সভা-সমাবেশের মতো অতি সংক্রামক অনুষ্ঠান হতে দিয়েছে। এই ধরনের অতি সংক্রামক বা সুপার স্প্রেডার অনুষ্ঠানই বিপদ ডেকে এনেছে ভারতে।

সমালোচকদের চুপ করিয়ে দেওয়া এবং খোলা মনে পরামর্শ নিতে না চাওয়ার সরকারি মনোভাবই ভারতের সংকট বাড়িয়েছে, যা কোনোভাবেই ক্ষমা করা যায় না বলেও লিখেছে পত্রিকাটি।

গত চার দিন ধরেই ভারতের দৈনিক সংক্রমণ ৪ লাখের ওপরে রয়েছে। ল্যানসেট বলছে, করোনা মোকাবিলায় মোদি সরকার তার প্রথম দফার সাফল্যকে তছনছ করে দিয়েছে। এমনকি করোনা মোকাবিলার জন্য প্রথম পর্যায়ে যে টাস্ক ফোর্স তৈরি করেছিল, এপ্রিল মাসের আগে বেশ কয়েক মাস যাবৎ তারা কোনো বৈঠকই করেনি। ফলে ভারতের করোনা পরিস্থিতিকে মোদি সরকারের নিজের তৈরি করা সংকট উল্লেখ করে ল্যানসেট বলছে, চাইলে এই সংকট এড়ানো যেত। কিন্তু মোদি সরকারের ভুল স্বীকার করতে না চাওয়ার মনোভাবই সমস্যা এতোটা বাড়িয়ে দিয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি