1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:১১ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
ওয়াসিম রিজভি ইসলাম ছেড়ে হিন্দু ধর্মে মুরাদের অশ্লীল অডিও সরাতে বিটিআরসির চেয়ারম্যানকে নির্দেশ ভিকি-ক্যাটের প্রেমের শুরু কীভাবে? ঢাকায় ভারতের পররাষ্ট্রসচিব শ্রিংলা ৩৭ বছর পর ডিসেম্বরে দেশে ঘূর্ণিঝড় বাংলাদেশ-ভারত তেলের পাইপলাইন বসানোর কাজ শেষ হবে জুন নাগাদ বিশ্বে করোনায় আরও ৫ হাজারের বেশি মৃত্যু হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা ঢাকায় আসছেন আজ যুক্তরাষ্ট্রকে তোয়াক্কা না করেই ভারতকে এস-৪০০ সরবরাহ করছে রাশিয়া ১০০ কোটি টাকায় বিয়ের ছবি-ভিডিও’র স্বত্ব বিক্রি ভিকি-ক্যাটের! বিশ্ব পরে, নিজ দেশেরই সেরা নন রোনালদো! ঢালিউড ফিল্ম মিউজিক অ্যাওয়ার্ডে সম্মাননা পেলেন সাবিনা ইয়াসমিন ভারতের রাষ্ট্রপতির সফরে সম্পর্কের প্রাধান্যের প্রতিফলন ঘটবে: নয়াদিল্লী মুরাদকে মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করতে বললেন প্রধানমন্ত্রী বিয়ের জন্য রাজস্থানে ভিকি-ক্যাটরিনা

ভ্যাট গোয়েন্দার অভিযানে উজালা পেইন্ট ফ্যাক্টরির গোপন হিসাব জব্দ, ২৭ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকি

রিপোর্টার
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২০
  • ৩৪২ বার দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক
ভ্যাট গোয়েন্দা উজালা পেইন্ট ফ্যক্টরির ১৪৭ কোটি টাকার গোপন বিক্রয় তথ্য উদঘাটন করেছে। এতে প্রতিষ্ঠানটিতে ২৭ কোটি টাকার ভ্যাট ফাঁকি পাওয়া গেছে।এই টাকা আদায়ে ব্যবস্থা নিচ্ছে ভ্যাট গোয়েন্দা।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ভ্যাট গোয়েন্দা রাজধানীর বাংলামটরে এএইচএন টাওয়ার (১২ তলা), ১৩ বীর উত্তম সিআর দত্ত রোডে অভিযান করে। এটি তাদের হেড অফিস।

প্রতিষ্ঠানের ফ্যাক্টরি সিংগাইর রোড, হেমায়েতপুর, সাভারে অবস্থিত, যার ভ্যাট নম্বর ০০১৩৭৬৯৭৯- ০৪০৩। সংস্থার উপপরিচালক নাজমুননাহার কায়সার ও ফেরদৌসী মাহবুবের নেতৃত্বে ১৪ সেপ্টেম্বর অভিযানটি পরিচালনা করেন।

অনুসন্ধান অনুসারে পেইন্ট ফ্যাক্টরিটি সুকৌশলে নিজস্ব বাণিজ্যিক দলিলাদী হেড অফিসে গোপন করে রেখেছিল।ফ্যাক্টরিতে এর পূর্বে ভ্যাট কর্মকর্তারা তল্লাশি করলেও এসব তথ্য পায়নি।

অনুসন্ধান অনুযায়ী দেখা যায়, এপ্রিল ২০১৪ থেকে আগস্ট ২০২০ পর্যন্ত তারা ভ্যাট রিটার্নে ২৫৬ কোটি টাকা বিক্রয় প্রদর্শন করেছে। এতে তারা ভ্যাট পরিশোধ করেছে ৫১ কোটি টাকা।

কিন্তু বাংলামটরের হেড অফিস থেকে জব্দকৃত কাগজ অনুসারে প্রকৃত মোট বিক্রি পাওয়া যায় ৪০৩ কোটি টাকা। এতে ১৪৭ কোটি টাকার তথ্য গোপন করা হয়েছে।
প্রতিষ্ঠানটি কর্তৃক প্রকৃত বিক্রয় মূল্য গোপন করায় ভ্যাট ফাঁকি হয়েছে ১২.৫১ কোটি টাকা। এই পণ্যে ৫% হারে সম্পূরক শুল্ক প্রযোজ্য। ফলে গোপনকৃত বিক্রয়ে সম্পূরক শুল্ক ফাঁকি হয়েছে ৪.২৭ কোটি টাকা।

অনুসন্ধান প্রতিবেদনে দেখা যায়, সময়মতো ভ্যাট না দেয়ায় ভ্যাট আইন অনুযায়ী ২% হারে সুদ আরোপযোগ্য।সেই হিসেবে সুদের পরিমাণ দাঁড়ায় ১০.৩৪ কোটি টাকা।

অভিযানে দেখা যায়, প্রতিষ্ঠানের প্রকৃত বাণিজ্যিক তথ্যাদি ওরাকল সফটওয়্যারে ধারণ ও গোপন করে রেখেছিল। এসব তথ্যের সাথে মাসিক রিটার্নের তথ্যে ব্যাপক গরমিল পাওয়ায় যায়। তথ্য গোপন করে ভ্যাট ফাঁকি দেয়ায় উজালা পেইন্ট ফ্যাক্টরির বিরুদ্ধে ভ্যাট আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি