1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০১:৪০ পূর্বাহ্ন

রেশন দুর্নীতি মামলায় ঋতুপর্ণাকে ৫ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদ

রিপোর্টার
  • আপডেট : বৃহস্পতিবার, ২০ জুন, ২০২৪
  • ৪৬ বার দেখা হয়েছে

রেশন দুর্নীতি মামলায় ইডির (এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট) জেরার মুখে পড়েন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। তিনি বাংলাদেশের অভিনেতা ও সংসদ সদস্য ফেরদৌস আহমেদের বন্ধু। একই সঙ্গে দুই দেশেই সমান জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী।

আজ দুপুর ১২ টা ৫৫ মিনিটে সল্টলেকের ইডির দফতরে ঢুকেছিলেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত।

যখন বের হন তখন ঘড়ির কাঁটায় ৫টা ৪৯ মিনিট। অর্থাৎ প্রায় ৫ ঘণ্টা ধরে ইডির ম্যারাথন জেরার মুখোমুখি হতে হল টলিউডের এভারগ্রিন নায়িকাকে।
হিন্দুস্থান টাইমস-এর তথ্য মতে, জিজ্ঞাসাবাদ শেষে যখন বের হন এই অভিনেত্রী তখন চোখেমুখে ক্লান্তির ছাপ। এসময় অভিনেত্রী বলেন, ‘আমাকে ওনাদের তদন্তের জন্য কিছু ডকুমেন্টস দেওয়ার জন্য বলা হয়েছিল, আমি সেটা করে দিয়েছি।

ওনারা আমার সহযোগিতায় খুশি। এই দুনীর্তির সঙ্গে আমার কোনও যোগ নেই’।

ঋতুপর্ণা বলেন, ‘ওনারাও সহযোগিতা করেছেন, আমরাও করেছি। এর চেয়ে বেশি কিছু আমি বলতে পারব না।

এরপরে যখন কিছু হবে আমি বলব’। ঋতুপর্ণাকে ফের তলব করা হয়েছে কিনা, সেই সম্পর্কেও কিছু জানাননি তিনি। শুধু বলেন, ‘এটা ডিপার্টমেন্ট আর আমাদের ব্যাপার’।
এদিন ঋতুপর্ণার সঙ্গে ছিলেন তাঁর ম্যানেজার শর্মিষ্ঠা মুখোপাধ্য়ায় ও আইনজীবী বিপ্লব গোস্বামী। রেশন দুর্নীতি মামলায় গ্রেফতার হওয়া এক অভিযুক্তের সঙ্গে ঋতুপর্ণার আর্থিক লেনদেনের তথ্য হাতে এসেছে তদন্তকারীদের, এমনটাই জানিয়েছে ইডির সূত্র।

যদিও আনুষ্ঠানিক ভাবে এই বিষয়ে মুখ খুলতে না-রাজ এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। জানা যাচ্ছে, অভিযুক্তের সঙ্গে প্রায় কোটির অংকে আর্থিক লেনদেন হয়েছে একটি সংস্থার, সেই সংস্থার প্রোপ্রাইটর হিসাবে নাম রয়েছে অভিনেত্রীর।
অভিনেত্রীর আইনজীবী জানান, ‘ঋতুপর্ণা সিনেমা প্রডিউস করার জন্য টাকা নিয়েছিলেন সেই টাকা ফেরত দেওয়া হয়ে গেছে। তবে সেটা রেশন বন্টন দুর্নীতির কিনা আমরা জানি না। মন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিকের টাকা নাকি সেটাও জানি না। ইডিকে উনি পূর্ণ সহযোগিতা আজকে করেছেন। ফের তাঁকে আর তলব করা হয়নি। আর কোন ডকুমেন্টস চাওয়া হয়নি’।

অর্থলগ্নি সংস্থা রোজভ্যালির আর্থিক নয়ছয়ের মামলায় নাম জড়িয়ে পড়েছিল টলিউড অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তর। ২০১৯ সালে রোজভ্যালি মামলায় তাঁকে তলব করেছিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট। তখন ইডির তদন্তকারীদের জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হয়েছিলেন ঋতুপর্ণা।

প্রসঙ্গত গত ৭ জুন মুক্তি পেয়েছে ঋতুপর্ণা-প্রসেনজিৎ জুটির অযোগ্য। কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় পরিচালনায় তৈরি এই ছবি ইতিমধ্যেই বক্স অফিসে ঝড় তুলেছে। ১০ দিনে ছবির আয়ের অংক ১ কোটি পার করেছে। দু-সপ্তাহে ১.৫ কোটির গণ্ডি পার করবে অযোগ্য, আশা বিশেষজ্ঞদের। ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় আছেন শিলাজিৎ মজুমদার, লিলি চক্রবর্তীও।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি