1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০২৪, ০৯:৩০ অপরাহ্ন

সিজিএ’র প্রতিবেদনে অনিয়ম দুর্নীতি এবং অডিট আপত্তি ১১ হাজার কোটি টাকা

রিপোর্টার
  • আপডেট : সোমবার, ৮ জুলাই, ২০২৪
  • ৪২ বার দেখা হয়েছে

মুস্তাকিম নিবিড়ঃ ২০১৯-২০-২১ এ তিন অর্থবছরের মধ্যে ৪৯ টি আর্থিক অনিয়মের অডিট প্রতিবেদন গত ৩/৭/২৪ তারিখে জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করা হয়। প্রতিবেদনটিতে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও সংস্থার অনিয়ম ও দুর্নীতির সাতকাহন ও প্রায় ১১ হাজার কোটি টাকার অডিট আপত্তি দেখানো হয়েছে।
এই ১১ হাজার কোটি টাকা আদায় যোগ্য, সংসদ সদস্যরা চাইলে এই টাকা আদায় করতে পারেন। টাকাগুলোর ভাগিদার হয়েছ ৫০ টি মন্ত্রণালয় ও দপ্তরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও কর্মচারী এবং ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানগুলো। সার্বভৌম সংসদ চাইলে ৪৯ টি মন্ত্রণালয়ের ও বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ডেকে নিয়ে এ টাকা ফেরত চাইতে পারেন। সংসদের জবাবদিহিতার কারনে সরকারি কর্মচারীদের অনিয়মের পরিস্ফুটন ঘটবে বলে সংশ্লেষ্য সূত্রগুলো জানিয়েছে। কিভাবে এই ১১ হাজার কোটি টাকা নয় ছয় হয়েছে এর সংক্ষিপ্ত প্রতিবেদন এবং পূর্ণ প্রতিবেদন পৃথক পৃথকভাবে সংসদে উপস্থাপন করা হয়েছে। অনিয়ম এবং দুর্নীতির বিষয়গুলো পৃথক পৃথক ভাবে সংগঠিত হয়েছে। যেমন বাজার মূল্য অপেক্ষা অধিক বেশি মূল্যে যন্ত্রপাতি ক্রয়, নির্ধারিত সময়ে মালামাল সংগ্রহ না করা, পিপিআর এর নির্দেশনাবলি অনুসরণ না করা এবং সরকারের আদেশ লংঘন করে মালামাল গ্রহণ না করা ব্যাতীত অর্থ পরিশোধ করা। যাহা প্রাপ্য নয় তার চেয়ে বেশি অর্থ পরিশোধ করা ইত্যাদি।

সিজিএ এর প্রতিবেদন মোতাবেক এই অর্থ প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ব্যক্তির পকেটস্থ হয়েছে। এই ব্যাক্তিরা প্রজাতন্ত্রের কর্মকর্তা-কর্মচারী। সংবিধানের বিধিবদ্ধ নিয়ম অনুযায়ী অভিযুক্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সম্পাদন করার জন্য সংসদ সার্বভৌম। এই টাকা আদায়যোগ্য বলে বিশ্লেষকরা মনে করে, ১১ হাজার কোটি টাকা আদায় হলে বর্তমান মূল্য স্মৃতি ১.৫ ভাগ কমে যাবে, কিন্তু সংসদ এ প্রতিবেদনের উপর নজর রাখছে কি? কোন সংসদ সদস্য কি এ প্রতিবেদন পড়েছে, এ নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। সিজিএর প্রতিবেদনে উল্লেখিত দুর্নীতি ও অনিয়ম এবং বাস্তবে এর সাথে সংশ্লিষ্ট সকল ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে বিস্তারিত থাকবে দৈনিক জাতীয় অর্থনীতির ধারাবাহিক প্রতিবেদনে।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি