1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৪:২১ অপরাহ্ন

সুনির্দিষ্ট আশ্বাস না পেলে রাজপথ ছাড়বেন না সৌদি প্রবাসীরা

রিপোর্টার
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৪৬৯ বার দেখা হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক : স্বয়ংক্রিয় ভিসা ও আকামার মেয়াদ বৃদ্ধি এবং সৌদি এয়ারলাইন্সের টিকিটের টোকেনের দাবিতে আজও (মঙ্গলবার) পথে নেমেছেন সৌদিপ্রবাসী কর্মীরা।
রাজধানীর কারওয়ান বাজারের পাঁচতারকা হোটেল সোনারগাঁওয়ের সামনের রাস্তায় জড়ো হয়ে ভিসা ও আকামার মেয়াদ বৃদ্ধি এবং সৌদি এয়ারলাইন্সের টিকিটের টোকেন প্রদানের দাবি সম্বলিত ব্যানার নিয়ে রাস্তায় নামেন তারা।
হাতিরঝিল থানা পুলিশ প্রবাসীদের অবস্থানের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। থানা জানায়, প্রবাসীদের অনেকেই রাতে আশপাশের আবাসিক হোটেলে অবস্থান নিয়েছিলেন। সকাল থেকে তারা সাউদিয়ার বাইরে অবস্থান শুরু করেন। তবে তারা সড়কের পাশে ও ফুটপাতে রয়েছেন। সড়কে যানচলাচল স্বাভাবিক রয়েছে।
তারা স্লোগান দিয়ে মিছিল নিয়ে সার্ক ফোয়ারা চত্বর প্রদক্ষিণ করেন। এ সময় তারা সড়ক অবরোধের চেষ্টা করলে পুলিশ তাদের নিবৃত্ত করে। প্রবাসীকর্মীরা বলছেন, তাদের দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। অনেকেরই ভিসার মেয়াদ আগামীকাল (৩০ সেপ্টেম্বর) শেষ হয়ে যাচ্ছে। কিন্তু ভিসার মেয়াদ বৃদ্ধি বা বিমান টিকিট রিকনফার্ম করার জন্য তারা এখনও টোকেনই পাননি।
সাউদিয়া কর্তৃপক্ষের শিডিউল অনুযায়ী, আজ যাদের টোকেন নম্বর ২৩০১ থেকে ২৭০০, শুধু এই ৪০০ জনকেই টিকিট দেয়া হবে। তবে তিন হাজারের পরের সিরিয়ালের টোকেন নম্বরের প্রবাসীরাও সকাল থেকে ভিড় করেছেন। পাশাপাশি আজ টিকিট ইস্যু করলেও নতুন করে আর কাউকে টোকেন দিচ্ছে না সাউদিয়া। তাদের টাঙানো একটি নোটিশে বলা হয়েছে, ৪ অক্টোবরের আগে আর টোকেন দেয়া হচ্ছে না।
ইমতিয়াজ হোসেন নামের এক প্রবাসী বলেন, আমি সৌদিতে একটি প্রতিষ্ঠানের ইলেকট্রিশিয়ান হিসেবে কাজ করি। আমি কুয়েত এয়ারওয়েজের টিকিট নিয়ে দেশে ফিরেছিলাম ফেব্রুয়ারিতে। জুনে আমার ফেরার কথা ছিল। কুয়েত এয়ারওয়েজ এখনো কার্যক্রম শুরু না করায় সাউদিয়ার টিকিট নিতে এসেছি। আমার টোকেন নম্বর তিন হাজারের পরে। অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে আমাকে ডাকা হয়েছে। তবে ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার আশঙ্কায় চারদিন ধরেই আমি এখানে অবস্থান করছি।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে ২৪ দিন ভিসা ও আকামার মেয়াদ বৃদ্ধির জন্য নির্ধারিত এজেন্সির মাধ্যমে মেয়াদ বৃদ্ধির কথা বলা হচ্ছে।
এদিকে এজেন্সিগুলোর কাছে গেলে তারা বলছেন, এ-সংক্রান্ত কোনো নির্দেশনা এখনও তারা পাননি। ফলে তাদের চরম অনিশ্চয়তার মধ্যে দিনাতিপাত করতে হচ্ছে।
তারা নিরুপায় হয়ে পথে নেমেছেন। সরকারের কাছ থেকে ভিসা ও আকামার মেয়াদ বৃদ্ধি তথা তাদের সৌদি আরব ফিরে যাওয়ার ব্যাপারে সুনির্দিষ্ট নিশ্চয়তা না পেলে রাজপথ ছাড়বেন না বলে জানিয়েছেন প্রবাসীকর্মীরা।
প্রবাসী ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ইমরান আহমদ বলছেন, সৌদি প্রবাসীদের ভিসা ও আকামার মেয়াদ বৃদ্ধির সমস্যা সমাধান তার হাতে নেই। কূটনৈতিক তৎপরতাই একমাত্র সমাধান।
তিনি সৌদি প্রবাসীদের সমস্যা নিয়ে কথা বলে ভিসা ও আকামার মেয়াদ পূর্বের মতো স্বয়ংক্রিয়ভাবে বৃদ্ধির ব্যাপারে সৌদি সরকারের সঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে যোগাযোগের ব্যাপারে অনুরোধ করেছেন।
এদিকে প্রবাসীদের ভিসা ও আকামার মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদনের জন্য ইতোমধ্যে সৌদি সরকার ১৮টি ট্রাভেল এজেন্সি নির্ধারণ করে দিয়েছে। তবে প্রবাসীরা বলছেন, এই প্রক্রিয়া অত্যন্ত সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। তাই স্বয়ংক্রিয়ভাবে সবার ভিসা ও আকামার মেয়াদ বৃদ্ধি করতে হবে।
প্রবাসীদের ফেরাতে ইতোমধ্যে নানা উদ্যোগ নিয়েছে সাউদিয়া ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। ফ্লাইট সংখ্যা বাড়িয়েছে উভয় এয়ারলাইন্স। এছাড়াও বিমান প্রবাসীদের ফেরাতে সৌদির তিন শহরে মোট ১২টি বিশেষ ফ্লাইট পরিচালনার ঘোষণা দিয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি