1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৬:০৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
উন্নত বাংলাদেশ গড়তে উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধি অপরিহার্য : রাষ্ট্রপতি একদিনে করোনায় আরও ৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৪৮০ ‘বঙ্গবন্ধুর খুনি রাশেদ চৌধুরীকে দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে’ বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে নতুন আইজিপির শ্রদ্ধা এক দিনে রেকর্ড ৬৩৫ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি দুর্গোৎসব অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের প্রতিচ্ছবি : ডেপুটি স্পিকার ৪ বছরেও সড়ক আইন বাস্তবায়নে বিধিমালা হয়নি : ইলিয়াস কাঞ্চন তোয়াব খান ছিলেন বাংলাদেশের সাংবাদিকতা জগতের পথিকৃৎ : রাষ্ট্রপতি ইরানে পুলিশ স্টেশনে হামলায় বিপ্লবী গার্ডসের কর্নেলসহ নিহত ১৯ এ বছর এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস হয়নি : শিক্ষামন্ত্রী

সুশান্তর আত্মহনন : সম্মান রক্ষায় আদালতে শাহরুখ আমির সালমান অজয়

রিপোর্টার
  • আপডেট : মঙ্গলবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২০
  • ৪৩৫ বার দেখা হয়েছে

বিনোদন ডেস্ক
সুশান্ত কাণ্ডে মানহানি দাবি করে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন শাহরুখ, আমির, সালমন ও অজয়সহ ৩৪জন প্রযোজক ও কয়েকটি সংগঠন। সংবাদ মাধ্যমের ‘‌দায়িত্বজ্ঞানহীন রিপোর্টিং’‌-এর অভিযোগ এনে দিল্লী আদালতে মামলা করেছেন তারা।

রিপাবলিক টিভি, টাইমস নাউ এবং এই দুই চ্যানেলের চার কর্মী- অর্ণব গোস্বামী, প্রদীপ ভান্ডারি, রাহুল শিবশঙ্কর এবং নভিকা কুমারের বিরুদ্ধে দিল্লি হাইকোর্টে এই মামলা দায়ের করা হয়েছে। এই মামলায় চ্যানেলগুলোতে বলিউডের বিরুদ্ধে ব্যবহার করা- ‘নোংরা’, ‘দূষিত’, ‘মাদকাসক্ত’- এই ধরনের শব্দ ব্যবহারে আপত্তি জানানো হয়েছে।

সালমান খান, আমির খান, শাহরুখ খান, কর্ণ জোহর, ফারহান আখতার, অজয় দেবগনের মতো অভিনেতা পরিচালকদের মোট ৩৪টি প্রযোজনা সংস্থা মিলে এই আবেদন জানায়।

তাদের অভিযোগ, সুশান্তের মৃত্যুর তদন্ত নিয়ে এই সংবাদ মাধ্যমগুলো বলিউডের দিকে কাদা ছুড়েছে। সিনেমার সঙ্গে যুক্ত শিল্পী, তারকাদের নিয়ে এই মিডিয়া ট্রায়াল বন্ধ হোক। তাঁদের ব্যক্তিগত জীবনে যখন তখন ঢুকে পড়া, গোপনীয়তার অধিকার খর্ব করা বন্ধ হোক। আবেদনে আরও বলা হয়েছে, এই চ্যানেলগুলোর ‘‌ এবং তার সদস্যদের বিরুদ্ধে দায়িত্বজ্ঞানহীন, অবমাননাকর, অপমানসূচক মন্তব্য বন্ধ করতে হবে।’‌ সোশ্যাল মিডিয়াতেও এসব করা যাবে না।

বলিউডের সুনাম বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে। বেশ কয়েক বছর ধরে ভারত প্রচুর অর্থ আয় করছে দেশের বাইরে সিনেমা মুক্তি দিয়ে। সিনেমার কারণে ভারতে বেড়েছে পর্যটকের আনাগোনাও। বহু মানুষের কর্মসংস্থান এই ইন্ডাস্ট্রিতে।

করোনাকালে ইন্ডাস্ট্রি হুমকির মুখে পড়েছে। দীর্ঘদিন হল ও শুটিং বন্ধ থাকায় কাজ হারিয়েছেন বহু মানুষ। এমন পরিস্থিতিতে তারকাদের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে প্রকাশ করা এসব ‘ভিত্তিহীন’ খবরে ইন্ডাস্ট্রির ক্ষতি হতে পারে বলে মনে করছেন সিনেমা সংশ্লিষ্টরা।

 

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি