1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
  3. [email protected] : lalashimul :
শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ০৮:০৫ পূর্বাহ্ন

সোনাইমুড়ী পৌরসভা নির্বাচনে কেন্দ্র স্থগিত গোলাগুলি, জাল ভোট দেয়ার অভিযোগ

মাহফুজুর রহমান
  • আপডেট : রবিবার, ১৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৫১ বার দেখা হয়েছে

সোনাইমুড়ী (নোয়াখালী) প্রতিনিধি : ভোট কেন্দ্র দখল, বহিরাগতদের অবাধেজাল ভোট দেয়ায়, ব্যালেট পেপার-সীল ছিনতাই সহ নানা অনিয়মের মধ্যে দিয়ে সোনাইমুড়ী পৌরসভার ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার সকাল ৮ টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোট চলে। বোমা বিষ্ফোরনের ঘটনা ঘটেছে ২ টি কেন্দ্রে। কয়েকটি কেন্দ্রে প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও গোলা গুলি হয়েছে। সরকার দলীয় আব্বাস উদ্দিননামে এক সমর্থক গুলিবিদ্ধ হয়েছে। ৯ টি ভোট কেন্দ্রের প্রতিটিতে একজন করে ম্যাজিষ্ট্রেটের নেতৃত্বে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য পর্যাপ্ত মোতায়েন ছাড়াও নির্বাচন কমিশনের লোকজন উপস্থিত থাকলেও কেন্দ্র দখল ও জাল ভোটের ঘটনা ঘটে।
সরজমিনে ঘুরে দেখা যায়,সকাল ৮ টায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময়প্রায় সব কয়টি ভোট কেন্দ্রে নারী-পুরুষ ভোটারদের দীর্ঘ সারি দেখা যায়। বেলা ১১ টার পর ৮টি ভোট কেন্দ্র সরকার দলীয় সমর্থকরা নিয়ন্ত্রনে নেয়। এসময় কোথাও কোথাও বিএনপির এজেন্টদের বেরকরে দেওয়া হয়।সকাল ৯ টার দিকে পৌরসভার কৌশল্যারবাগ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভোট কেন্দ্রে কাউন্সিলর প্রার্থী কামাল হোসেন পাঞ্জাবী প্রতীকের সমর্থকরা ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থী রওশন আরা পুতুল চশমা প্রতীকের সমর্থকরা জাল ভোট ও ভোটারদের কেন্দ্রে আসতে বাধা দেয়।আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ধাওয়া কওে বহিরাগতদের তাড়িয়ে সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থী চশমা প্রতীকের এজেন্ট হুমায়ন কবিরকে জাল ভোট দেওয়ার অভিযোগে আটক করে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট হাছিনা আক্তারের নির্দেশে কেন্দ্রের সামনে খুঁটির সাথে বেঁধে রাখে।
সকাল সাড়ে ৮ টারদিকে ৬ নং ওয়ার্ড বাটরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে নৌকার সমর্থকদের সাথে বিএনপির সমর্থকদেও মধ্যে কেন্দ্রের সামনে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, ককটেল বিষ্ফোরন ও গোলাগুলি হয়। নৌকার সমর্থক আব্বাস উদ্দিন নামে এক যুবক গুলিবিদ্ধ ও ৬ জন গুরুতর আহত হয়।
৮ নংওয়ার্ড কাঠালী মোহাম্মদীয়া হাফিজিয়া নুরাণী কুরআন এতিমখানা মাদ্রাসায় ভোট কেন্দ্রে সকাল ৮ টা থেকে বেলা ১২ টা পর্যন্ত শান্তিপূর্ন পরিবেশে ভোটচলে।এরপরই নৌকা ও কাউন্সিলর প্রার্থী হাফেজ দুলাল উটপাখি প্রতীকের সমর্থকরা ককটেল বিষ্ফোরন ঘটিয়ে আতঙ্ক ছড়ায়। কেন্দ্রে প্রবেশ করে ব্যালেট পেপার ও সীল ছিনতাই করে নিয়ে যায়। পরে প্রিজাইডিং অফিসার জসিম উদ্দিন মজুমদার ভোট কেন্দ্র স্থগিত করেন।
৭ নংওয়ার্ড সুফিয়া খাতুন ক্যাডেট স্কুল এন্ড মাদ্রাসায় ভোট কেন্দ্রে বেলা ১১ টায় বহিরাগতরা দখলে নেয়। কাউন্সিলর প্রার্থী আমিনুল ইসলাম মানিক ডালিম প্রতীকের নির্বাচনী কার্যালয় ভাংচুর করে। এ সময়তার ২ সমর্থকে বেধম প্রহার করা হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি