1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
টাকা নয়, কাজ দিয়েই মানুষের হৃদয় ও মন জয় করা যায়: আইজিপি আওয়ামী লীগ সবাই করতে পারবে তবে নেতৃত্বে আসবে ত্যাগীরা : তথ্যমন্ত্রী ২৫ কোটি ডলার ঋণ অনুমোদন এডিবির জাতিসংঘে কাশ্মীর বিরোধের সমাধান চাইলেন ইমরান খান বৈশ্বিক মঙ্গলের জন্য কাজ করবে কোয়াড জোট : মোদি করোনায় আরও ২৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৮১৮ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে আরও ২২১ জন হাসপাতালে ভর্তি বিশ্বনেতারা প্রধানমন্ত্রীর কাছে উন্নয়ন ও নেতৃত্বের গল্প শুনতে চান : তথ্যমন্ত্রী দেশের উন্নয়ন করেছে আওয়ামী লীগ সরকার : পরিকল্পনামন্ত্রী বিশ্ব মানবতার কণ্ঠস্বর জননেত্রী শেখ হাসিনা : পলক ৫জি সেবা চালু হচ্ছে ডিসেম্বরে : টেলিযোগাযোগমন্ত্রী প্রবাসীদের দেশে বিনিয়োগের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর নভেম্বরে এসএসসি, ডিসেম্বরে এইচএসসি পরীক্ষা: শিক্ষামন্ত্রী আগামী জুনের মধ্যে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন : ওবায়দুল কাদের রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে ইইউর সহায়তা চাইলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

২৪ কোটি করোনার টিকা লাইনআপে রয়েছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

রিপোর্টার
  • আপডেট : বুধবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১৩ বার দেখা হয়েছে

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, ২৪ কোটি করোনার টিকা লাইনআপে রয়েছে। এ টিকা আগামী বছরের মার্চ-এপ্রিলের মধ্যে আমরা পাব বলে আশা করছি।

আজ বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) হোটেল লা মেরিডিয়ানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা কোভাক্সের মাধ্যমে বড় একটা লট পাব। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় যখন বলবে তখনই ওরা দেবে। এটি কোভ্যাক্সের আওতায় আর সিনোফার্ম বিক্রি করেছে সেটি থেকে পাওয়া যাবে।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের দরকার ২৬ কোটি টিকা। আমরা ২৪ কোটি পাচ্ছি, আপাতত আমরা এটাতেই খুশি। এটা আগামী বছরের মার্চ-এপ্রিলের মধ্যে আসবে। যেহেতু আমরা টিকা লোকালি প্রডিউস করব আপাতত আমরা ২৪ কোটিতেই খুশি। আমরা আশা করি, এর মধ্যে আমাদের অধিকাংশ লোককে টিকার আওতায় আনতে পারব।’

রাশিয়ার টিকা নিয়ে অগ্রগতি রয়েছে কি-না জানতে চাইলে তিনি বলেন, রাশিয়ার টিকায় খুব একটা অগ্রগতি নেই। তবে আমরা কাজ করছি।

করোনাভাইরাসের টিকার এক ডোজ না নেওয়া সত্ত্বেও ব্রিটেন অন্য দেশের নাগরিকদের দেশটিতে আশ্রয় দিচ্ছে, অথচ বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্য দেশটিতে প্রবেশে রেড লিস্ট রাখার বিষয়টি নিয়ে দুঃখ প্রকাশ করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

ড. মোমেন বলেন, ‘যারা এক ডোজ টিকাও নেয়নি তাদের তোমাদের দেশে আশ্রয় দিয়ে রেখেছ। আমাদের এখানে তোমাদের (ব্রিটিশ) যে নাগরিক আছে তাদের যেতে দাও। ভারতকে তারা রেড অ্যালার্ট করেনি, তাদের লোক মারা গেছে বেশি; সে অনুযায়ী আমাদের কম। আমাদের দেশে আফ্রিকান কোনো ভেরিয়েন্ট নেই। আমাদের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এ বিষয়টা রিপোর্টে বলা উচিত।’

রেড অ্যালার্টের বিরুদ্ধে বাংলাদেশবিরোধী কোনো শক্তি আছে কিনা- এমন প্রশ্নের জবাবে মোমেন বলেন, ‘এটা আমি বলতে পারব না।’

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি