1. [email protected] : admin :
  2. [email protected] : জাতীয় অর্থনীতি : জাতীয় অর্থনীতি
  3. [email protected] : lalashimul :
মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ০৮:৪৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
দেশবাশীকে ঈদের শুভেচ্ছা ১৫ দিনে প্রবাসীরা পাঠিয়েছেন ১০ হাজার ৭০০ কোটি টাকা ঝিনাইদহে সীমান্ত থেকে ৭ জন আটক রাজধানী ছাড়লেন ৫০ লাখেরও বেশি মানুষ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেল সুপার-ওসিসহ সাতজনের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন কোরবানি পশুর উচ্ছিষ্টাংশ পরিবেশসম্মতভাবে অপসারণে আহ্বান ঈদযাত্রার শেষ মুহূর্তে যানজটে নাকাল ঘরমুখী মানুষ ছিনতাই হওয়া পরিকল্পনামন্ত্রীর আইফোনটি উদ্ধার করেছে পুলিশ দুপুরে টিকা নিবেন : খালেদা জিয়া পবিত্র হজ আজ লকডাউনেও সিলেট-৩ আসনে ভোট হবে দেখবে কে ? গাইবান্ধায় বিদ্যুৎ এর পোল রেখে সড়কের উন্নয়ন দেশে করোনায় প্রাণ গেল আরও ২২৫ জনের সাবেক পুলিশ আইজিপি এ ওয়াই বি আই সিদ্দিকী আর নেই পশ্চিম ইউরোপে বন্যার তাণ্ডব এ পর্যন্ত মৃত্যু ১৭০

৯ হাজার কোটি লোকসান করোনায়

রিপোর্টার
  • আপডেট : বুধবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ২৭৭ বার দেখা হয়েছে

বিনোদন ডেস্ক : করোনাভাইরাস মহামারী এমন একটি বিষয় যা অর্থনীতির সমস্ত খাতে মারাত্মক প্রভাব ফেলেছে। বিনোদন শিল্প বিশেষ করে চলচ্চিত্রে এর ক্ষতির পরিমাণ বিশাল। আর বলিউডের মতো বিশ্বব্যাপী বিস্তৃত সিনেমার বাজারে এই ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৯ হাজার কোটি টা। এমনটাই দাবি করেছে ফিল্মফেয়ার।
সম্প্রতি ধীরগতিতে সিনেমা নির্মাণ শুরু হলেও ভারতে সিনেমা হল বন্ধ। যার ফলে ক্ষতির পরিমাণ আরও বাড়বে বলেই দুশ্চিন্তা ভর করেছে বলিউডে। প্রযোজক ও হল মালিকরা তাই দাবি করছেন বিশেষ কোনো উপায়ে সিনেমা হল চালুর ব্যবস্থা করা হোক।
দেশটিতে এখনো করোনার পরিস্থিতি খুব খারাপ। লকডাউন যদিও নেই তবুও কোনো কিছুই স্বাভাবিক নয়। তবে সবকিছুই চালু হয়েছে স্বাস্থ্যবিধি মেনে। সেজন্যই দাবি উঠছে হলগুলো পরিষ্কার করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সেগুলো পরিচালনা করার অনুমতি দেয়া হোক।
কিন্তু দেশটির সরকারের এখন পর্যন্ত সিনেমা হল খোলা নিয়ে তেমন আগ্রহ দেখা যাচ্ছে না। তাই থিয়েটারগুলো আবার কখন খুলবে তা নিয়ে এখনও একটি বড় রহস্য রয়েছে। বাধ্য হয়ে মাল্টিপ্লেক্স অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়া তাদের সরকারকে সিনেমা হল ‘জরুরি ভিত্তিতে’ আবার চালু করার জন্য লিখিত অনুরোধ জানিয়েছে।
সিনেমা সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলো দাবি করছে যে লক্ষ লক্ষ লোককে কর্মসংস্থান সরবরাহ করে এমন খাত ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রি গত ছয় মাস ধরেই অচল। এতে প্রায় আনুমানিক ৯,০০০ কোটি টাকা হারিয়েছে।
চীন, কোরিয়া, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, ইতালি, স্পেন, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং আমেরিকাসহ বিশ্বের ৮৪টিরও বেশি দেশে উপযুক্ত নিরাপত্তায় সতর্কতা মেনে তাদের সিনেমা থিয়েটারগুলো চালু করেছে। ভারত সরকার সেই পথটি অনুসরণ করবে কিনা তা কেবল সময়ই বলে দেবে।

Please Share This Post in Your Social Media

এই বিভাগের আরো সংবাদ
© ২০২০ দৈনিক জাতীয় অর্থনীতি